খুব সহজ পদ্ধতিতে দিতে হবে কাস্ট সার্টিফিকেট! অফিসারদের কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর! রইল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বর্তমান যুগের যেকোনো ধরনের নতুন নথিপত্র তৈরি করতে গেলে জাতি শংসাপত্র কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ কাজে লেগে থাকে । কিন্তু কীভাবে এই জাতির শংসাপত্র গ্রহণ করা যায় বা আবেদন করা যায় সে ব্যাপারে অনেকেই চিন্তিত ছিলেন। সরকারি অফিসে গেলে অনেক সময় লেগে যায় । বা আবেদনকারী কে ঘোরানো হয় ভিন্ন অজুহাতে। এবার থেকে সেই সমস্ত বিষয় থেকে মুক্তি পেতে চলেছে রাজ্যবাসীর।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কাস্ট সার্টিফিকেট নিয়ে নতুন এক সিদ্ধান্ত নিলেন। বলাবাহুল্য ঘোষণা করলেন। এই কাস্ট সার্টিফিকেট তৈরি করতে আপনাকে সরকারি অফিসে একবার যেতেই হবে। চাইলে আপনি অনলাইনে আবেদন করতে পারেন ।কিন্তু সেটা আরো বেশি সময় সাপেক্ষ। । মানুষকে রীতিমতো ইচ্ছাকৃতভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ এসেছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে।

তাই ঐদিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি এমন একটি সিদ্ধান্ত নেবেন যার ফলে রীতিমতো খুশির আমেজ বিরাজ করছে রাজ্যবাসীর মনে। ঠিক কি জানালেন। জানবো বিস্তারিত। সম্প্রতি এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, আলাদা করে মানুষের কোন কাস্ট সার্টিফিকেট হয় না। যদি কারুর জন্মগতভাবে এসসি, এসটি, ওবিসি ইত্যাদি সার্টিফিকেট থেকে থাকে তাহলে তা অবশ্যই যেকোন ক্ষেত্রে কার্যকর হবে।

তৃণমূল নেত্রীর দাবি অনুযায়ী,”যদি কোন মানুষ কে বলা হয় 1951 সালের কাগজ নিয়ে আসতে তাহলে তা কখনোই সম্ভব নয়।এমনকি আমি নিজেও আমার মায়ের অত বছর পুরনো কাগজ নিয়ে আসতে পারবো না। তাই মানুষকে এসব ঝামেলায় ফেলে ভোগান্তির কোন মানেই হয়না। তবে যদি কারুর কাস্ট সার্টিফিকেট থেকে থাকে সেটা আলাদা ব্যাপার। এগুলো জন্মগতভাবে হয়”।

Back to top button