রুটি নরম ও ফুলকো বানাতে চান? জেনে নিন কিছু সহজ পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন :সকালের জলখাবারে রুটিটা গরম হওয়ার সাথে সাথে নরমও হওয়া চাই আর চাই ফুলকো বা ফোলা। আসলে এটা নির্ভর করে কিছু সহজ কৌশলের উপর। তাহলে আজ জেনে নেওয়া যাক কিভাবে রুটি নরম ও ফুলকো বানাবেন।রুটিটা কতটা নরম হবে তা নির্ভর করে এর উপাদানের উপর। আবার রুটি বানানোর কিছু কৌশল বা প্রক্রিয়া দ্বারাও তা করা যায় নরম ও তুলতুলে।

আবার একটি উপযুক্ত পরিমাণ আর্দ্রতা নরম রুটির জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। তাই নরম রুটি তৈরি করতে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে রান্নার প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পরেও তারা তাদের ভিতরে যথেষ্ট আর্দ্রতা আটকে রাখে। এর জন্য কিছু টিপস বা উপায় নিচে আলোচনা করা হলো যা আপনাদের কাজে আসবে।

1.রুটি নরম ও ফুলকো করার সহজ টিপস
2.গরম জল বা গরম দুধ দিয়ে আটা বা ময়দার মন্ড করে নিতে হবে।


3.আটার মণ্ডটা ভালো করে মেখে নিতে হবে রুটি বানানোর আগে।


4.লেচি কাটার আগে নরম করে মেখে নিতে হবে। আটা বা ময়দা বেশি টাইট মাখলে রুটি ফুলবেও না, এবং তা নরমও থাকবে না। তাই মণ্ডটা নরম করে নিতে হবে।


5.রুটি ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পাতলা করে বেলতে হবে।

6.আগুনের উপর রেখে রুটি ফুলিয়ে নিতে পারলে তা সবচেয়ে বেশি ভালো হয়। এজন্য রুটির একেকটা দিক আগুনের উপরে ১৫-২০ সেকেন্ড করে রাখতে হবে এর বেশি রাখতে যাবেন না। এতে রুটি পুড়ে শক্ত হয়ে যেতে পারে।

7.রুটি সেঁকা হয়ে গেলে, তা নামানোর আগে গরম তাওয়ায় কিছুটা জল দিয়ে রুটিগুলো সেই জলেতে একবার বুলিয়ে নিয়ে তারপর তুলে নিন। এরপর তা এয়ারটাইট পাত্রে রেখে দিন।


8.যে পাত্রে রুটি রাখবেন যেমন হটপট বা লাঞ্চ বক্স ইত্যাদি তা একটি ভেজা নরম কাপড় বিছিয়ে রাখুন। রুটি সেঁকা হয়ে গেলে তার মধ্যে রুটি রেখে, ভালো করে কাপড়টি দিয়ে মুড়ে নিতে হবে।


9.রুটির নিচের অংশের তুলনায় রুটির উপরের অংশ আগে শুকিয়ে যায় বা শক্ত হয়ে যায় তাই রুটির উপরের অংশে অল্প করে তেল অথবা মাখন লাগিয়ে নিতে পারেন।

10.রুটি তৈরি করার বেশ কিছু ঘণ্টা পরে যদি সেটি খেতে হয়, তা হলে আটা বা ময়দা জলের পরিবর্তে গরম দুধ দিয়ে মেখে নিলে ভালো হয়। এতে করে তা বেশি সময় ধরে নরম ও তুলতুলে থাকে।
11.রুটি কখনো দ্বিতীয়বার গরম করা ঠিক না। কারন এতে করে তা আরও শক্ত হয়ে যাবে। রুটির ভিতরের আদ্রতা আরো বেশি শুকিয়ে যায় তা আবার গরম করলে, ফলে তা আরো শক্ত হয়ে যায়।


12.দোকান থেকে কিনে আনা তন্দুরি রুটি কয়েক ঘণ্টা পর খেলে তা অনেক শক্ত হয়ে যায়। তাই তন্দুরি রুটি গরম করতে হলে তা একটা পাত্রে গরম পানি নিয়ে তার উপরে জালি রেখে তন্দুরি একটু স্টিম বা ভাপ দিয়ে নিতে হবে। এতে তন্দুরি রুটি গরম ও নরম হবে। তবে তা তাওয়ায় গরম করা যাবে না, এতে করে আরো শক্ত হয়ে যাবে।

13.রুটি মাখার সময় যতটা বেশি ময়াম দেওয়া হবে তত ভালো ভাবে রুটি ফুলবে।সকালের জলখাবারে বা নাস্তায় রুটি একটি জনপ্রিয় খাবার সকলের কাছে, আর যদি তা হয় নরম ও তুলতুলে তবে তো কথাই নেই। তাই গরম গরম নরম নরম তুলতুলে রুটি হোক সকলের নাস্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button