বাড়িতে ধান মজুত করে রাখার জায়গায় 4 মাস ধরে লু’কিয়ে ছিল ভ’য়’ঙ্কর বি’ষাক্ত কো’বরা সা’প দুটি! বেরিয়ে আসতেই ঘটলো বি’পত্তি! তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সোশ্যাল মিডিয়াতে সাপ সংক্রান্ত বিভিন্ন ভিডিও খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে ওঠে। অনেক মানুষ নিজেদের জী-বনের ঝুঁ-কি নিয়ে এইসব ভিডিও বানিয়ে থাকেন। তার কারণ অন্যতম ভ-য়ঙ্কর প্রজাতির মধ্যে সাপের নাম উল্লেখ করা যায়। ক্ষুব্ধ হয়ে গেলে সহজেই এই প্রজাতিটি কোন প্রাণীর উপর আ-ক্রম-ণাত্মক হয়ে উঠতে পারে। তবে কিছু কিছু মানুষ আছেন যারা খুব সহজেই সাপকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

এদেরকে আমরা এক কথায় সা-পুড়ে বলে থাকে সম্প্রতি যে ভিডিওটি সম্পর্কে আপনাদেরকে বলতে চলেছি সেটি ‘কোমল চৌধুরী স্নেক রেস্কিউ টিম’ নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশিত করা হয়েছে যত ভয়ঙ্কর একটি ভিডিও। আমরা আগে এমনটা ভাবতাম যে গ-ভীর জ-ঙ্গলে বা জলাশয় সাপেদের বসবাস। কিন্তু বর্তমানে সেই চিত্রটা সম্পূর্ণ রকম ভাবে পাল্টে গেছে। এখন গ-ভীর জ-ঙ্গলে ও জলাশয় পাশাপাশি কে দেখা যায় বাড়ির আশেপাশে ঘোরাফেরা করতে।

এমনকি কখনো কখনো বাড়ির মধ্যে প্রবেশ করেছে সেই সমস্ত বি-ষাক্ত সাপ গু-লি। যার ফলে মুহূর্তের মধ্যে আ-তঙ্ক সৃষ্টি হয় সেই বাড়ির লোকেদের কাছে। এই ভিডিও সম্পর্কে আপনাদেরকে বলতে চলেছি সেটি সেরকম একটি ঘটনা। তবে ঘটনাটি ঘটেছে উড়িষ্যার একটি গ্রামে। সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে উড়িষ্যা ছত্রিশগড়ে অবস্থিত একটি গ্রামে যেখানে কৃষকরা তাদের সারা বছরের উৎপাদিত বা ফসল ধান স্টোর করে রাখে সেই জায়গার মধ্যে দেখতে পাওয়া গেছে দুটি বিষাক্ত সাপকে।

এবং তারা প্রচন্ড পরিমানে রেগে রয়েছে। তখন তারা খবর দেয় স্থানীয় এক সপারকে। কিছুক্ষণের মধ্যে সেখানে উপস্থিত স্থানীয় এক সাপুড়ে।সে এসে তা সরঞ্জাম এবং অভিজ্ঞতার সাথে সেই দুইটি সাপকে সাবধানতার সাথে উদ্ধার করেন। এবং পরবর্তী ক্ষেত্রে নিয়ে যায় নিরাপদ জায়গা। সেখানে তাদেরকে মুক্ত করে দেওয়া হবে। এতে সাপকে কোনো রকম কোনো আঘাত করা ছাড়াই উদ্ধার করা হলো ও তার পাশাপাশি সুরক্ষিত করা হলো সেই সমস্ত বাড়ির লোক গু-লিকে।

Back to top button