মুখে কলসি ঢুকে যাওয়ায় প্রা-ণহা-নি হয়ে যাচ্ছিল এক চি-তার, জী’বনের ঝুঁ-কি নিয়ে চি-তাকে বাঁ-চা-তে গিয়ে ঘটলো বি-প-ত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা যত উন্নত হচ্ছি ততই যেন নিজেদের মধ্যে থেকে হা-রিয়ে ফে-লছি মানবিকতা এবং মানসিকতা কে । বিভিন্ন অসামাজিক কাজ কর্মের সাথে বর্তমানকালে মানুষ জড়িয়ে পড়ছে । হা-রিয়ে ফে-লছে তারা তাদের মানসিকতা । তাই রাস্তাঘাটে যদি কোন বি-প-দগ্রস্ত মানুষকে বা জী-ব-জ-ন্তুকে আমরা দেখে থাকি তাহলে হয়তো সাহায্যের জন্য এগিয়ে যায় না । নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্য করা গেলেও শুধুমাত্র মনুষত্ববোধ না থাকার দরুন আমরা সাহায্য করতে চাইনা।

কথাতে আছে যদি তুমি কাউকে সাহায্য করো তাহলে কোনো না কোনো সময় সেই সাহায্য দ্বিগুণ আকারে ফিরিয়ে দেবে কেউ । এই পৃথিবী নিয়ে রাখে না কিছুই । অবিলম্বে তা দ্বিগুণ আকারে ফিরিয়ে দেয় তোমার কাছে। কিন্তু সেই সমস্ত বিষয়গু-লি আমাদের মনে থাকে না সবসময় বা মনে থাকলেও মনে করার চেষ্টা করি না । কিন্তু সম্প্রতি যে ভিডিওটি দেখা গেছে সেটি মানবিকতার উদাহরণ ছাড়া আর কিছু বলা যেতে পারে না এই মুহূর্ত। নিজের জীবনের কথা না ভেবে ঝুঁ-কি নি-য়ে বাঁচিয়েছে বি-প-দগ্রস্ত জ-ন্তুকে ।

সম্প্রতি ইউটিউবে একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে । যেখানে অনেকগু-লি এই ধরনের ভিডিও একত্রিত করে একটি ভিডিও আকারে প্রকাশ করা হয়েছে । কিন্তু যে ভিডিওটি সবথেকে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে সেটি হল একটি বাঘ কোন কারণে লোকাল এর মধ্যে চলে আসে এবং সে সেখানে এসে বি-ভ্রা-ন্তিতে পড়ে এবং বি-প-দগ্রস্ত হয়ে পড়ে । ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে একটি কলসির মধ্যে জল খেতে গিয়ে কোনো কারণে চি-তা বা-ঘ-টির মু-খ আ-টকে যায় । অনেক রকম চেষ্টাচরিত্র করার পরও কোনো রকম ভাবে সে কলসি থেকে নিজেকে মুক্ত করতে পারছিল না ।

অবশেষে ঘটনাটি নজরে আসে বেশকিছু গ্রামবাসীর । কিন্তু চি-তা বা-ঘের মুখ থেকে কলসি বের করবে কে? আ-ক্র-মণের একটা ভ-য় থে-কেই থাকে । তবুও সেই সমস্ত ভয় কি উপেক্ষা করে গ্রামবাসীরা কোন রকম ভাবে চি-তা বা-ঘ-টিকে একটি দড়ির সাহায্যে তাকে বাঁধতে সক্ষম হয় এবং পরবর্তীকালে বনদপ্তরের আধিকারিকদের কে তারা খবর দেয়। কিছুক্ষণের মধ্যে সেখানে উপস্থিত হয় বেশ কিছু কর্মী এবং তারা অতি সুকৌশলে সাথে সে বাঘটির মুখ থেকে কলসি টি খুলে ফেলে । নজিরবিহীন এই ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে । তার পাশাপাশি ওই গ্রামবাসী প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকল ।

Back to top button