এই গরমেও দারুণ দীর্ঘস্থায়ী ভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে যেভাবে ব্যবহার করবেন মুসুর ডাল, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের মধ্যে অনেকেই ত্বকের যত্ন নেন । বর্তমান যুগে আমরা যত উন্নত হচ্ছি ততই যেন বেড়ে চলেছে ত্বকের উপর অ-ত্যা-চার । শুধুমাত্র ত্বক বলা ভুল হবে তার সাথে সাথে বেড়ে চলেছে শরীরের যাবতীয় অঙ্গপ্রত্যঙ্গের উপর অ-ত্যা-চার । কাজেই বয়স বাড়তে না বাড়তে দেখা যাচ্ছে বলিরেখা । চামড়া জ্ব-র হয়ে উঠছে অল্প বয়সে । যা আমাদেরকে আরো কু-সছিত করে তোলে । কিন্তু এমন বেশ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে যেগুলো অবলম্বন করলে আপনি আপনার বয়সের তুলনায় নিজের শরীরকে সুস্থ স্বাভাবিক রাখতে পারবেন ।

ত্বক হয়ে উঠবে ঝলমলে। ত্বককে ঝলমলে এবং ম-সৃণ করে তুলতে বর্তমান যুগে ছেলেমেয়েরা অনেকেই পাড়ি দেয় পার্লারে । সেখানে নামিদামি ক্রিম ব্যবহার করে । কিন্তু তেমন কোনো ফল মিলে না । অনেক ক্রিম ব্যাবহার করলেন এবার ব্যবহার করুন ঘরোয়া এই পদ্ধতি । ত্বকের উজ্জলতা ফিরিয়ে আনতে এর জুড়ি মেলা ভার । তাই আজ বলবো এটি কি কি কাজে লাগে।

বিভিন্ন উপায়ে আপনি আপনার ত্বককে উজ্জ্বল এবং পরিষ্কার করতে পারেন । তার বেশ কিছু নমুনা আজকে আপনাদেরকে এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তুলে ধরে ছি । যদি কোনো কারণে অতিরিক্ত রাত জাগার ফলে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে যায় তাহলে আপনি সেটি শসা আলুর রস লাগিয়ে দূর করতে পারেন । অর্থাৎ শসা এবং আলুর রস কে যদি আপনি প্রতিনিয়ত তুলার সাহায্যে চোখের নিচে রাখেন ১০-১৫ মিনিট তাহলে দেখবেন মাত্র এক সপ্তাহের দূর হয়ে গেছে চোখের নিচে কালো দাগ ।

এর পাশাপাশি রোদে ঘোরার করার কারণে যদি ত্বকের চামড়া কালো হয়ে যায় তাহলে মুসুরির ডাল পেস্ট আলুর রস, চাল গুঁড়ো এবং সামান্য পরিমাণ দুধ নিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করতে পারে। সে মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিন রাখার পর জল দিয়ে ধুয়ে দিতে পারেন । তার পাশাপাশি যদি কোনো কারণে ঠোঁট কালো হয়ে যায় তাহলে দুধের সর লাগিয়ে শুতে পারেনা রাতে । সবকিছুতেই ফল পাবেন হাতেনাতে মাত্র ৮-১০ দিনের ভিতরে।

Back to top button