গরমকালে এই সহজ দুর্দান্ত উপায়ে টমেটো করুন সংরক্ষণ, থাকবে অনেকদিন পর্যন্ত টাটকা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- টমেটো এমন একটি জিনিস যা কিন্তু কমবেশি বিভিন্ন রান্নাতেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে যেহেতু এটা সারা বছর পাওয়া যায় না আর পেলেও মান একই রকম থাকে না, তাই কিন্তু আপনারা গরমের শুরুতেই টমেটো সংরক্ষণ করে নিতে পারেন। তবে এই টমেটো সংরক্ষণ করার বিশেষ কিছু পদ্ধতি রয়েছে তা অবশ্যই আপনাদেরকে ভালোভাবে অবলম্বন করতে হবে। পদ্ধতিগুলি খুব একটা কঠিন নয়, শুধুমাত্র আপনাদের একটু সময় প্রয়োজন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক এবং জেনে নেওয়া যাক টমেটো সংরক্ষণের বিশেষ কয়েকটি উপায়।

১) গরমকালে হিমায়িত করে টমেটো সংরক্ষণ:

  • যদি আপনারা গরমকালে দীর্ঘ সময়ের জন্য পাকা টমেটো সংরক্ষণ করে রাখতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাদেরকে এটিকে হিমায়িত করে নিতে হবে। ভুল করেও কিন্তু গরমকালের বাইরে টমেটো রাখবেন না তাহলে এটা তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাবে। ফ্রিজে রাখলেও কিন্তু দুই থেকে তিন দিনের মধ্যেই এটা নরম হয়ে যায়। এবার প্রশ্ন উঠছে যে তাহলে টমেটো কোথায় রাখবেন? আপনাদেরকে ফ্রিজারের মধ্যে টমেটো রেখে দিতে হবে। কিন্তু সে ক্ষেত্রেও কিন্তু কয়েকটা জিনিস মাথায় রাখুন।
  • ১. টমেটো এনে তা ভালো করে আগে ধুয়ে নিন। তারপর জল ঝরিয়ে নিন।
  • ২. একটি শুকনো পরিষ্কার সুতির কাপড় দিয়ে মুছে নিন।
  • ৩. একটি এয়ার টাইট বড় কণ্টেনারে গোটা টমেটো ভরে ফ্রিজারে রাখুন। রান্না করার এক ঘণ্টা আগে ফ্রিজার থেকে বের করে নিন।

২) টমেটো পিউরি বানিয়ে সংরক্ষণ:

  • হিমায়িত না করে আপনারা চাইলে টমেটো পিউরি করে নিয়েও কিন্তু এটাকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত গরমকালে সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন।টমেটো পিউরি বানানো খুবই সোজা। টমেটো পেস্ট করে তা রান্না করে নিতে হয় তারপর ঠাণ্ডা করে বোতলে ভরে রাখতে হয়। তাহলে কিন্তু দীর্ঘদিন পর্যন্ত এটাকে ভালো রাখা যাবে।

৩) টমেটোর খোসা ছাড়িয়ে ক্যানের মাধ্যমে সংরক্ষণ:

  • আপনারা কিন্তু খুব সহজেই ক্যানের মাধ্যমে টমেটো গরম কালে দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে পারেন। এগুলি দ্রুত গরম জলে ব্লাঞ্চ করা হয়, তারপর খোসা ছাড়িয়ে বয়ামে ভরে ঢেকে দেওয়া হয়। বয়ামগুলিকে সিল করার জন্য সেদ্ধ করা হয়। এতে চিনির কোন প্রয়োজন নেই। ক্যানিং পদ্ধতিতে প্রায় এক বছর সময় পর্যন্ত আপনারা টমেটো ভালো রাখতে পারবেন। টমেটো খোসা ছাড়ানো এবং বয়ামে যাওয়ার আগে এক মিনিটের বেশি সেদ্ধ করার দরকার নেই। এই প্রক্রিয়ায় আপনাদের কোন আসল রান্না প্রয়োগ করতে হবে না। চাইলে আপনারা স্বাদ বাড়ানোর জন্য সামান্য লবণ এতে যোগ করতে পারেন। এই টিনজাত টমেটোর ভেতরে কিন্তু আপনারা অবশ্যই লেবুর রস ব্যবহার করতে ভুলবেন না। কারণ এটা টমেটোকে কখনোই তাড়াতাড়ি নষ্ট হতে দেয় না।
  • ক্যানে সংরক্ষণের উপায়:

  • প্রথম ধাপ: এই ক্ষেত্রে প্রথমে একটি বড় পাত্রের মধ্যে আপনাদের ভালো করে জল ফুটিয়ে নিতে হবে। তারপর প্রতিটি টমেটোর নীচে একটি ছোট “X” করে কেটে নিন ছুরি দিয়ে। বরফের জলের একটি বড় বাটি প্রস্তুত করে রাখুন। জল ফুটে উঠলে টমেটো দিন। মোটামুটি মিনিটখানেক সময়ের জন্য আপনাদের এটাকে রান্না করতে হবে এবং তারপর চামচের সাহায্যে তুলে নিয়ে দ্রুত বরফ জলের মধ্যে কিন্তু দিতে হবে। বরফ জলের মধ্যে দিলে কিন্তু দ্রুত এগুলো ঠান্ডা হয়ে যাবে এবং খোসা ছাড়াতে সুবিধা হবে। অন্যদিকে আপনাদের একটি পরিষ্কার খালি বয়াম নিয়ে নিতে হবে। পারলে এটাকে ১০ মিনিট সময় পর্যন্ত গরম জলে ডুবিয়ে রাখুন এবং একটি শুকনো কাপড় দিয়ে ভালো করে শেষে মুছে নিন। তাহলে সম্পূর্ণ জীবাণুমুক্ত হয়ে যাবে।

  • দ্বিতীয় ধাপ: এবার একটি চায়ের কেটলির মধ্যে আপনাদের কিছুটা পরিমাণ জল নিয়ে ফুটিয়ে নিতে হবে। যখন জলের মধ্যে বলক আসবে তখন এতে চার টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে দিন। পরের ধাপে বয়াম এর মধ্যে সম্পূর্ণ টমেটো ভরে দিতে হবে। বয়ামের ঢাকনা কিন্তু অবশ্যই আপনারা ভালো টাইট করে বন্ধ করবেন। এবার কেটলিতে যে জল ফুটিয়েছিলেন তার মধ্যে আপনাদের এই বয়াম নামিয়ে দিতে হবে
  • মোটামুটি এটাকে ডুবিয়ে রাখতে হবে এবং চেষ্টা করবেন যাতে মোটামুটি এক ইঞ্চি জল দিয়ে ঢাকা থাকে। ৪৫ মিনিটের জন্য পুরো সময় ফুটন্ত জলে দিয়ে রান্না করুন। ৪৫ মিনিট পর বয়াম জল থেকে তুলে একটি জায়গায় ২৪ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন। তাহলেই কিন্তু ভালোভাবে সম্পূর্ণ বয়াম সিল হয়ে যাবে। এবার যে কোন শীতল আর অন্ধকার জায়গায় এই বয়াম ভর্তি টমেটো আপনারা সংরক্ষণ করতে পারেন। যখন প্রয়োজন হবে এখান থেকে টমেটোর নিয়ে আবারও জায়গা মতন কিন্তু রেখে দেবেন।
Back to top button