দারুন দুঃসংবাদ লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদনকারীদের জন্য! দুটি SMS ঢুকলেও পাবেন না টাকা এই কারণে! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-এবার সরাসরি অফিশিয়াল বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই কয়েকটি ব্যাংক জানিয়ে দিল যে তারা যদি এই ব্যাংকের গ্রাহক হয়ে থাকে তবে তাদের অ্যাকাউন্ট লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের টাকা প্রবেশ করবেন না তার পাশাপাশি জানিয়েছে যে এই সমস্যা থেকে কিভাবে সমাধান মিলবে ।আমরা জানি মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছিল প্রকল্পের কাজ কর্ম ।

ইতিমধ্যে প্রায় ২২ হাজার ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে গোটা রাজ্য জুড়ে সেখানে প্রায় কয়েক লক্ষ মহিলারা আবেদন করেছে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য।  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা অনুসারে পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে প্রত্যেকের একাউন্টে ৫০০ টাকা এবং হাজার টাকা করে পাঠিয়ে দেওয়া হবে ।সেই কথা তিনি রেখেছেন ।অবশেষে যে সমস্ত মহিলারা ইতিমধ্যে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য আবেদন করেছেন এবং

যাদের আবেদনপত্র গ্রহণ হয়েছে তাদের একাউন্টে ৫০০ টাকা করে প্রবেশ করতে শুরু করেছে পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে। ইতিমধ্যে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন পত্র জমা নেওয়া শেষ হয়ে গেছে । অর্থাৎ দুয়ারে সরকার ক্যাম্প এর মাধ্যমে আবেদনপত্র জমা নেওয়ার সময় সীমা অতিক্রম হয়ে গেছে যারা আবেদন করেছেন তারা অতি অবশ্যই জানেন যে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য একটি ব্যাংক একাউন্টের দরকার ।

প্রথমদিকে শোনা যাচ্ছিল যে সিঙ্গেল একাউন্ট দরকার । পরবর্তী ক্ষেত্রে এমনটা জানা গিয়েছিল যে জয়েন্ট একাউন্ট হলেও চলবে । সেই মত বেড়ে গিয়েছিল লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন করার মানুষের সংখ্যা । তবে আপনি যদি এই সমস্ত ব্যাংকের গ্রাহক হয়ে থাকেন তাহলে কিন্তু আপনার লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের টাকা ঢুকবে না তার কারণ কি । সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ব্যাংক নিজের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। যার মাধ্যমে তারা জানিয়েছে যে লক্ষ্মী ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন পত্র টাকা তাদের একাউন্টে ঢুকবে না যারা আসে সমস্ত ব্যাংকের গ্রাহক ।

তার কারণ হচ্ছে সম্প্রতি বিভিন্ন ব্যাঙ্কগু-লি মেলবন্ধনের ফলে আইএফএসসি কোড পরিবর্তিত হয়েছে যেমন পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক এবং ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া একসাথে মিলিত হয়েছে । তার পাশাপাশি কানারা ব্যাঙ্ক এবং সিন্ডিকেট ব্যাংক একসাথে মিলিত হয়েছে । এই সমস্ত ব্যাঙ্ক আইএফসি কোড পাল্টে গেছে তাই যদি আপনারা পুরনো আইএফএসসি কোড যুক্ত ছবি দিয়ে থাকেন আবেদনপত্রের সাথে তাহলে কিন্তু আপনাদের একাউন্টে টাকা আসবেন না ।

Back to top button