মাদার টেরেসার ছবি থেকে জ্যোতি বসুকে বাদ দেওয়ার বিতর্কে এবার মুখ খুললেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়! তুমুল ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বাংলার অভিনয় জগতে এককালীন দাপিয়ে অভিনয় করেছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় । এবং এমনটা আপনি বলতে পারেন যে অভিনয় জগত কে বাংলায় ইন্ডাস্ট্রিকে বিশ্বদরবারে জনপ্রিয় করে তুলেছে যে সমস্ত অভিনেতা এবং অভিনেত্রী রা তাদের মধ্যে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অন্যতম একজন । তার ব্যক্তিগত জীবনে অনেক খামখেয়ালিপনা রয়েছে ।

এসেছে অনেকবারের বা-ধা-বি-পত্তি কিন্তু কেরিয়ার জীবনে তিনি কিন্তু নিখুঁতভাবে অভিনয় দক্ষতা মাধ্যমে জয় করেছে হাজার হাজার দর্শকের মন । এখনো পর্যন্ত যে কোন ছবিতে অভিনয় করলে রীতিমতো সেই ছবি জনপ্রিয়তা আবারো বৃদ্ধি পায় । অন্যান্য অভিনেতাদের মতন সাতে-পাঁচে না থাকায় এই প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবার বললেন বিপাকে । সম্প্রতি মাদার টেরেজার জন্মদিন উপলক্ষে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় একটি ছবি শেয়ার করেন ।

যেখানে এক ফ্রেমে দেখা যাচ্ছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, মাদারটেরেজা তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু এবং দেবশ্রী রায় কে । কিন্তু বিপত্তি ঘটে অন্য জায়গায় । এবং এই ভুল হয়ে যাওয়াতে রীতিমত বি-ক্ষোভে ফে-টে প-ড়ে নেটিজেন এর একাংশ । যদিও সে সমস্ত নেটিজেনদের বিরুদ্ধে পাল্টা জবাব দেন বুম্বাদা ।

যে ছবিটি তিনি শেয়ার করেছিলেন সেখানে তিনি বেমালুম ভাবে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু এবং দেবশ্রীকে ক্রপ করে দিয়েছেন অর্থাৎ বাদ দিয়েছিলেন । যার ফলে নেটিজেন এর একাংশ নানান ধরনের প্রশ্ন আসতে শুরু করে । এবং তারা বি-ক্ষোভ করে সোশ্যাল মিডিয়াতে । যার ফলে টনক নড়ে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এর । এবং তিনি সমস্ত নেটিজেনদের উদ্দেশ্যে বলেন যে এটা ইচ্ছাকৃতভাবে করেনি । কেউ তাকে ক্রপ ছবি পাঠিয়ে ছিলেন । তিনি সেটা পোস্ট করেছিলেন ।

তার পাশাপাশি তিনি এটাও বলেন যে তিনি জানেন যে কোন রাজনৈতিক দলের সাথে ছবি তুললে তার সমর্থক হওয়া যায়না । এতদিন কোনো ক-টাক্ষ নিয়ে আমি পাল্টা জবাব দেয়নি । কিন্তু ছবিটি আমার কাছে ভীষণ প্রিয় । তাই মুখ খুলতে বাধ্য হলাম । আশা করা যায় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের এই ধরনের জবাব এরপর নেটিজেনদের আর নতুন করে বলার কিছু থাকবে না ।

Back to top button