মাছ ধরতে গিয়ে ভাগ্য ফিরল গরীব মৎস্যজীবীর! জালে উঠল কোটি টাকার সম্পত্তি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আচ্ছা কখনো কি এমনটা হতে পারে যে মাছ ধরতে গিয়ে ফাঁকা হাতে ফিরে এলেও কোটিপতি হয়ে যাওয়া যায় ? এসব গল্প শুধু রূপ কথাতেই হয় বুঝি । বাস্তবের কোনো মূল্য নেই । কিন্তু এবার বাস্তবে তার চিত্র দেখা গেল সম্প্রতি । যা দেখে রীতিমত অবাক গোটা পৃথিবীর মানুষজন ।ঠিকই শুনেছেন মাছ ধরতে যাওয়া একটি মৎস্যজীবীদল মাছ না পেলেও কোটিপতি হয়ে ফিরেছেন সমুদ্র থেকে । কিভাবে প্রশ্ন আসছে আপনার মনে নিশ্চয় জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে ।

আমরা জানি যে আমাদের দেশে তথা পৃথিবীতে এমন বহু মানুষ রয়েছে যাদের জীবন এবং জীবিকা নির্ভর করে মাছের উপর । সমুদ্র তীরবর্তী অঞ্চল গুলোতে এই ধরনের মানুষের প্রাদুর্ভাব বেশি দেখা যায় । সমুদ্রের জলে নৌকো নিয়ে মাছ ধরে তারা এবং সেই মাছ পরবর্তী ক্ষেত্রে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়ে । যার ফলে শহরবাসীরা মাছ খাবার অনুভূতি সহজেই পেতে পারেন । কিন্তু তাদের জীবন থাকে অভাব-অনটন ।এবার সেই অভাব অনটন কে পিছনে ফেলে রাতারাতি কোটি টাকার মালিক হলেন এই মাছ ব্যবসায়ী এর দল ।

অন্যান্য দিনের মতো সেদিনও তারা ৩৫ জন মিলে সমুদ্রের পাড়ে রওনা দিয়েছিল মাছ ধরার জন্য ।কিন্তু তাদের দুর্ভাগ্য যে সেদিন তাদের জালে একটিও মাছ ধরা পড়েনি ।যার ফলে মন ভরাক্রান্ত করে ফিরে আসছিল কিনারা দিকে । কিন্তু হঠাৎ করে তারা লক্ষ্য করে যে কিনারা সামনে পড়ে রয়েছে মস্ত বড় তিমি মাছ । এবং সে তিমি মাছের পাশেই রয়েছে অমূল্য রতন ।অর্থাৎ তিমি মাছের বমি । কি বলছেন ব-মি আবার অমূল্য রতন কবে থেকে হলো ? মানুষের বমি শু-নলে গা ঘি-নঘি-ন ক-রে কিন্তু পৃথিবীর সবথেকে দামি মূল্যবান জিনিস গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো তিমি মাছের ব-মি ।

তারা ৩৫ জনের একটি দল ছিল এবং মোট ১২৭ কেজি তিমি মাছের ব-মি তারা সেখান থেকে উ-দ্ধার করেছে । যার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা । এই টাকা তারা সমানভাবে ভাগ করে নেবেন এবং কিছু টাকা গরিবদের সাহায্য দান করবেন । বিশ্বদরবারে তিমি মাছের বমি পাওয়া দুর্লভ । তার পাশাপাশি আমরা জানি তিমি মাছের য-কৃৎ থেকে অনেক ধরনের ও-ষুধ তৈরি হয় । ইতিমধ্যে ভিডিওটি কাঁ-পাচ্ছে এখন নেট দুনিয়া ।

Back to top button