আজ থেকে শুরু হলো সবার একাউন্টে লক্ষীর ভান্ডারের টাকা ঢোকা! ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ইতিমধ্যেই সারা রাজ্য জুড়ে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের সমস্ত কাজ পুরোদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। আগস্ট মাস থেকে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে শুরু করেছেন মহিলারা। এই সময়ের মধ্যেই প্রায় 1 কোটি 80 লক্ষ আবেদনপত্র জমা পড়েছে সরকারের ঘরে। এমতাবস্থায় সকলের মনেই প্রশ্ন উঠছে এই প্রকল্পের টাকা কবে থেকে দেওয়া শুরু করা হবে। শোনা গিয়েছিল পয়লা অক্টোবর থেকে এই প্রকল্পের জন্য টাকা দেওয়া শুরু হবে।

তবে এখনো অনেক মহিলারাই এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করার পরেও টাকা পাননি। তাই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে টাকা পাঠানোর সঠিক দিন নিয়ে। ওয়াকিবহাল মাধ্যমের খবর থেকে জানা যাচ্ছে, ভবানীপুর উপনির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পরেই এই টাকা পাঠানোর সমস্ত প্রক্রিয়া শুরু করে দেওয়া হবে। প্রশাসনিক সূত্রে খবর 1 কোটি 80 লক্ষ আবেদনপত্রের মধ্যে প্রায় দেড় কোটি আবেদনপত্র ইতিমধ্যেই মঞ্জুর করে দেওয়া হয়েছে।

বাকিগুলি এখনো যাচাই এর পর্বে রয়েছে। তবে সম্ভবত খুব শীঘ্রই সেগুলিকে ও মঞ্জুর করে দেওয়া হবে। এখনো পর্যন্ত রাজ্য সরকার এই প্রকল্পের জন্য এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পে যারা আবেদন করেছিলেন তাদের অনেকের ফোনে দুটি এসএমএস এসে গিয়েছে। যাদের ফোনে এই দুটি এসএমএস পৌঁছে গিয়েছে তারা খুব শীঘ্রই পুজোর আগে টাকা পেয়ে যাবেন। কিন্তু যাদের এখনো এসএমএস পৌঁছয় নি তাদের টাকা আসতে কিছুটা সময় লাগবে।

পাশাপাশি জানিয়ে রাখি সামনেই 30 শে অক্টোবর রাজ্যের কয়েকটি জেলায় রয়েছে উপনির্বাচন। এমতাবস্থায় আপাতত সেসব জায়গায় নির্বাচন আদর্শ বিধি লাগু হয়ে গিয়েছে। ফলস্বরূপ সেই এলাকার মহিলারা এই প্রকল্পের টাকা পাবেন না। তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, সেসব এলাকার মহিলারা একেবারে সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবর মাসের টাকা পেতে চলেছেন। তাই চিন্তার কোন কারণ নেই।

Back to top button