দেখুন কিভাবে সমুদ্রে নামানো হয় বিশালাকার জাহাজগুলিকে! রইল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের দেশ ভারত বর্ষ যেমন বিভিন্ন যানবাহন দিয়ে সজ্জিত থাকে ঠিক তেমনি পৃথিবীর এমন বহু দেশ রয়েছে যেখানে আমাদের দেশের মতন যানবাহন খুব কম দেখা যায় বরং সেখানে দেখা যায় আলাদা কোনো ধরনের যানবাহন । আমাদের এখানে যেমন ট্রেন-বাস ইত্যাদির প্রচলন সবথেকে বেশি দেখা যায় । ঠিক তেমনি পৃথিবীতে এমন অনেক দেশ রয়েছে যেখানে জাহাজ নৌকা বা ছোটখাটো স্টিমারের প্রচলন বেশি দেখা যায় কারন সে সমস্ত জায়গা গুলির বেশিরভাগই হচ্ছে নদীমাতৃক সমুদ্র পরিবেষ্টিত এলাকা ।

লক্ষ লক্ষ টন ওজন বিশিষ্ট একটি জাহাজ সমুদ্রের মধ্যে কিভাবে ভেসে থাকতে পারে ? তার পাশাপাশি জাহাজের মধ্যে যে সমস্ত বিলাসবহুল জায়গাগু-লি থাকে যেমন ডাক্তার-খানা সুইমিং পুল খেলার মাঠ ইত্যাদি গু-লি থাকার পরও কিভাবে সেটি জলের মধ্যে সঠিক ভাবে থাকে সে ব্যাপারে প্রশ্ন কমবেশি প্রত্যেকেরই থেকে থাকে । তবে এই সমস্ত বিষয়গু-লি থেকেও সব থেকে বড় প্রশ্ন যে এত বিশাল আকৃতির জাহাজকে কিভাবে সমুদ্রের জলে আনা হয়

এবং এই জাহাজ কোথায় তৈরি করা হয় তা সমস্ত কিছু জানাবো আজকের প্রতিবেদনের মাধ্যম। জাহাজ যেহেতু সমুদ্রের মধ্যে এক সময় নিয়ে যেতে হবে তাই পরিবহন খরচ অনেক বেশি পড়ে যাবে । কারণ এত বড় আকৃতির জাহাজ কে কিভাবে সমুদ্র নিয়ে যাওয়া যাবে সেটাও একটা ভাববার বিষয় । তাই জাহাজ তৈরি হয় সমুদ্রের কিনারা তে প্রথমে সমুদ্রের কিনারা তে জাহাজের থেকে বড় আয়তন বিশিষ্ট একটি প্লাটফর্ম তৈরি করা হয়

এবং সেখান থেকে সমুদ্রের জল সম্পূর্ণ রকম ভাবে বের করে দিয়ে ফাঁকা জায়গা করে দেওয়া হয় তারপর ধীরে ধীরে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি এবং ইঞ্জিনিয়ার এর সাহায্যে দৈত্য আকৃতির জাহাজ তৈরি করা হয়। জাহাজ যখন তৈরি হয়ে যায় তখন সে খালি জায়গাতে পুনরায় সমুদ্রের জল প্রবেশ করতে দিয়ে দেয় । যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই জাহাজটি জলের মধ্যে ভাসমান অবস্থায় থাকে। এবং সমুদ্রে যাত্রা করতে পারে । এছাড়াও আরো অনেক পদ্ধতি রয়েছে যেমন ধরুন এয়ারব্যাগ। বিভিন্ন এয়ার ব্যাগ এর উপর জাহাজে পরিকাঠামো তৈরি করা হয়। এবং এয়ার ব্যাগগু-লি উপর দিয়ে জাহাজ পৌঁছে যায় একদম জলে।

Back to top button