সারাদিন খেটে উপার্জন করেও অর্থাভাবে ভুগছেন! এই জিনিসগুলি বাড়িতে রাখলেই আসবে অর্থ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা পরিশ্রম করে উপার্জন করেন প্রচুর পরিমাণে । কিন্তু সেই অর্থে তাদের ঘরের টেকে না। অর্থাৎ কোন না কোন দিক থেকে সে অর্থ ব্যয় হয়ে যায় । যার ফলে সঞ্চয় হয় না এবং আপনি বর্তমান যুগে যদি অর্থ সঞ্চয় করতে না পারেন তাহলে কিন্তু ভবিষ্যতে আপনার চ-রম ভো-গান্তি হতে পারে । এমনটা প্রমাণ আমরা বহুবার দেখেছি । যে হারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে চলেছে তাতে এখন থেকে যদি সঞ্চয় করা হয় তাহলে কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে ক-ঠিন স-মস্যা দে-খা দে-বে।

আপনি কি জানেন যে আমাদের পরিবেশ এমন কিছু জিনিস রয়েছে যেগুলো যদি আপনারা বাড়িতে রাখেন তাহলে কিন্তু অর্থাভাব অর্থাৎ অর্থের স-মস্যা দূর হতে পারে । একদমই ঠিক শুনেছেন অর্থ ভাব দূর হতে পারে বাড়িতে এই কয়েকটি জিনিস রাখলে আজকে প্রতিবেদনের সেই সমস্ত জিনিস নিয়ে আমরা আলোচনা করব আসুন দেখে নেই কি কি সেই জিনিস।

চন্দন কাঠ :- চন্দনকাঠের অনেক সময় আমরা পুজো দিয়ে থাকি। তার পাশাপাশি ধূপকাঠি ও ব্যবহার করি। আপনি কি জানেন যে চন্দনকাঠ পরিবেশে সমস্ত নেগেটিভিটি কে দূর করে এবং ঘরে নিয়ে আসে পজিটিভ এনার্জি । অতি অবশ্যই বাড়িতে চন্দন কাঠ রাখুন এবং চন্দন কাঠের ব্যবহার বাড়িয়ে তুলুন । তাহলে দেখবেন আপনার বাড়িতে পজিটিভ এনার্জি আসবে যার ফলে অর্থ ভাব দূর হবে । মধু অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

বিশেষ করে পুজো ক্ষেত্রে ব্যবহার হয়ে থাকে তার পাশাপাশি শরীরকে সুস্থ রাখতে মধুর ব্যবহার হয়ে থাকে স-র্দি-কা-শি-জ্ব-র জেলা থেকে মুক্তি পাবার জন্য অনেকে মধু সেবন করে থাকে। মধু একটি শুভ জিনিসকে। তাই একে বাড়িতে রাখা অত্যন্ত ভালো। বীণা হল একটি বাদ্যযন্ত্র। মূলত সংগীতকারদের বাড়িতে বা যারা গান শেখে তাঁদের নারীতে বীণা দেখতে পাওয়া যায়। এই বীণা খুবই পবিত্র বলে মনে করা হয়। আর অনেকেই মনে করেন যে বীণা যদি বাড়িতে থাকা তাহলে অর্থের আগমন হতেই থাকে।

Back to top button