ঘন কালো অন্ধকারে ঢাকতে চলেছে গোটা পৃথিবী! সূর্য থেকে ধেয়ে আসছে জিও ম্যাগনেটিক ঝ’ড়! হুঁশিয়ারি বিজ্ঞানীদের!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- যত সামনের দিকে আমরা এগিয়ে চলেছি ততই যেন অশনি সংকেত বা দু-র্যোগ ঘিরে ধরেছে আমাদেরকে একের পর এক দু-র্যোগ দেখা যাচ্ছে এই পৃথিবীর বুকে । সম্প্রতি এমনটাই জানা যাচ্ছে যে পৃথিবীর বুকে দু-রন্ত গ-তিতে ধেয়ে আসছে জিও ম্যাগনেটিক ঝ-ড় । নামটা হয়তো অনেকে প্রথম শুনলেন তাইতো? ভাবছেন এটা আবার কি ঝ-ড়? আসলে সৌরজগতে প্রতিনিয়ত এমন কিছু ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে যার প্রভাব প্রত্যক্ষভাবে পরে পৃথিবীর বুকে ।

জিও ম্যাগনেটিক ঝড় হলো একটি ভূ চৌম্বকীয় ঝ-ড় বা এটিকে একপ্রকার সৌর ঝড় বলেও অভিহিত করা যায়। এই প্রক্রিয়ায় সূর্য থেকে অতিরিক্ত মাত্রায় চুম্বকীকৃত কণা নিষ্কাশন হতে থাকে। সূর্য থেকে করোনাল মাস নিষ্কাশন হয়। এই ঝর গু-লিকে ১ থেকে ৫ স্কেলের পরিমাপ করা হয়। এর মধ্যে সব থেকে দুর্বল হয়ে থাকে ১ নম্বরের ঝড় এবং সব থেকে ক্ষতির সম্ভাবনা বেশি থাকে সর্বোচ্চ অর্থাৎ ৫ নম্বরের ঝ-ড়ে।

স্পেস ওয়েদার প্রেডিকশান সেন্টার জানিয়েছে এই সপ্তাহেই পৃথিবীর দিকে এই জিও ম্যাগনেটিক ঝড় আসতে চলেছে এবং তার সাথে সাথে বিজ্ঞানীরা এমন টা জানিয়েছে এই ঝড় জি ১ বা জি ২ প্রকৃতির হতে চলেছে । জিও ম্যাগনেটিক ঝ-ড় যদি পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়ে তাহলে সব থেকে বেশি সমস্যা হবে ইন্টারনেট পরিষেবা । ইন্টারনেট রিপিটার গুলি অফলাইনে চলে যায় তাহলে ইন্টারনেট ব্ল্যাক আউট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে প্রবল পরিমাণে ।

বিশেষ করে যে সমস্ত দেশে ইন্টারনেট ক্যাবল গুলিকে সমুদ্রের তলা দিয়ে রাখা হয়েছে সেই সমস্ত দেশ গুলির চরম বিপদের সম্মুখীন হতে চলেছে আগামী সপ্তাহের মধ্যে । এই সৌর ঝড় বা জিও ম্যাগনেটিক ঝ-ড় পৃথিবীর বুকে কয়েক ঘণ্টার জন্য হতে পারে আবার কয়েক দিনের জন্য হতে পারে । সাধারণত বায়ুমণ্ডল পৃথিবীর রক্ষাকবচ হিসেবে কাজে লাগে ।

কিন্তু যদি বায়ুমণ্ডল কোন কারণে এই জিও ম্যাগনেটিক ঝ-ড়ের সংস্পর্শে আসে তাহলে চরম সমস্যা দেখা দেবে পৃথিবীর বুকে । এমন কি বন্ধ হয়ে যেতে পারে সম্পূর্ণ রকম ভাবে ইন্টারনেট পরিষেবা । এছাড়াও টেলি সংযোগ ব্যবস্থা রীতিমতো বিপর্যস্ত আকার ধারণ করতে পারে।এছাড়াও পৃথিবীপৃষ্ঠের বৈদ্যুতিক সংযোগ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে এই সৌর ঝড়ের প্রভাবে। স্যাটেলাইট সিস্টেম রীতিমতো বিপর্যস্ত হতে পারে।

Back to top button