‘দুয়ারে সরকার ক্যাম্প’ থেকে কিভাবে করবেন লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের ফর্ম ফিলাপ? রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজ্যে পুনরায় দ্বিতীয়বারের জন্য শুরু হয়ে গিয়েছে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প । আগেরবার দুয়ারে সরকারকে আমরা দেখেছিলাম মূলত প্রাধান্য দেয়া হয়েছিল স্বাস্থ্য সাথী কার্ড কে । তবে এবারে দুয়ার সরকার ক্যাম্পে প্রাধান্য দেয়া হবে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পকে । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুপ্রেরণাতেই এই প্রকল্প মহিলাদের জন্য জারি করা হয়েছে। যার ফলে মহিলারা সরকারিভাবে ৫০০ টাকা এবং হাজার টাকা অনুদান পাবে ।

একথা আমি আপনি প্রত্যেকে জানি । তার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড অতি অবশ্যই দরকার ।কিন্তু অনেকেই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নেই । যার ফলে আবেদনপত্র পূরণ করতে গিয়ে সমস্যা হচ্ছে কিভাবে আবেদন পত্র পূরণ করবেন তা জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে । দুয়ারের সরকার ক্যাম্পে গিয়ে লক্ষী ভান্ডার আবেদন পত্রটি আপনারা সংগ্রহ করুন ।

আবেদনপত্র সংগ্রহ করুন তারপরে সে আবেদনপত্রটি হাতে পাওয়ার পর উপরের ডান দিকে দেখবেন লেখা আছে এপ্লিকেশন নাম্বার । সে জায়গায় আপনার করণীয় কিছু নেই । এখানে যে আধিকারিক আপনার আবেদনপত্র জমা নেবে সেই আধিকারিক এই ধরনের লেখাটা লিখবে । এরপর আপনার কাছে জানতে চাওয়া হবে যে আপনি কোন কাস্টের । তার পাশাপাশি আপনি কোন কাজ করেন কিনা আপনার বাড়ির ঠিকানা গ্রামে থাকলে কোন গ্রামে ইত্যাদি যাবতীয় তথ্য ।

নিচে একটা টেবিল দেওয়া আছে সেখানে আপনি পরিবারের মহিলার নাম লিখতে পারেন সর্বপ্রথম । তার সাথে সাথে লিখতে হবে তার জন্ম তারিখ রেশন কার্ডের নাম্বার এবং তার নিচে পরিবারের সকল সদস্যের নাম লিখে একই পদ্ধতিতে জন্ম তারিখ এবং রেশন কার্ডের নাম্বার লিখে দিতে হবে ।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য প্রতিটি আবেদনপত্রে উপরে একটি বিশেষ ইউনিক নাম্বার দেওয়া থাকবে । যে নাম্বারটি সরকারি পোর্টালে নথিভুক্ত করা থাকবে এই ইউনিক নাম্বার ছাড়া কোন আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্য হবে না ।

এরপর সে আবেদনপত্রের সাথে অতি অবশ্যই আপনাকে সাথে করে নিয়ে যেতে হবে রেশন কার্ড আধার কার্ড কিংবা ভোটার কার্ড এর জেরক্স এবং আপনার যদি কাস্ট সার্টিফিকেট থেকে থাকে তাহলে অতি অবশ্যই তার জেরক্স নিয়ে যেতে হবে । সাথে নিয়ে যেতে হবে পাসপোর্ট সাইজের বেশ কয়েকটি ছবি এবং এই আবেদন পত্র পূরণ করার পর জমা দিতে হবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে ।

Back to top button