এই জিনিসটি সাথে না থাকলে পাবেননা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের প্রতি মাসে হাজার টাকা, জানুন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় তে যে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প কথা জানানো হয়েছিল । এবার সেটাকে বাস্তবায়িত হতে চলেছে পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে । কারণ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমনটা জানিয়েছে যে পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে রাজ্যের প্রতিটি মহিলার ব্যাংক একাউন্টে পাঁচশো এবং হাজার টাকা করে পাঠিয়ে দেবে রাজ্য সরকার । সাধারণ মানুষদের জন্য ৫০০টাকা এবং এসসি এসটি ওবিসি দের জন্য হাজার টাকা করে পাঠানো হবে । কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এই প্রকল্পের আওতায় নিজেকে অন্তর্ভুক্ত করতে গেলে কি কি শর্তাবলী প্রযোজ্য রয়েছে ।। আসুন সেগুলো দেখে নেব আমরা এক নজরে ।

১)প্রথমত যারা আবেদন করবে তাদেরকে স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে এই রাজ্যের ।

২)আবেদনকারীর বয়স অতি অবশ্যই ২৫ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে ।

৩)আবেদনকারীকে অবশ্যই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকা বাঞ্ছনীয় ।

৪) আবেদনকারীর একটি সিঙ্গেল ব্যাংক একাউন্ট দরকার পড়বে । যার সাথে আধার কার্ড সংযুক্ত করা আছে ।

৫)সরকারি কর্মচারী বা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কেন্দ্রের ও রাজ্যের, কোনও স্বশাসিত সংস্থা, সরকারি নিয়ন্ত্রিত কোনও সংস্থা, পঞ্চায়েত, মিউনিসিপালিটি, শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী, সরকারি স্কুল গুলির ক্ষেত্রে বা যদি কেউ নিয়মিত বেতন বা পেনশন পান তাঁরা এই সুবিধা পাবেন না।

৬)এক্ষেত্রে যদি আবেদনকারীর স্বাস্থ্যসাথী বা আধার কার্ড না থাকে তাঁকে প্রথমে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করার সুযোগ দেওয়া হবে। সঙ্গে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড বা আধার কার্ড পাওয়ার ক্ষেত্রে তাঁকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হবে।

৭)আবেদনকারীরা এই প্রকল্পের জন্য যোগ্য কি না তা ঠিক করবে জেলাগুলির ক্ষেত্রে জেলাশাসকরা এবং কলকাতার ক্ষেত্রে কলকাতা মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের কমিশনার।

Back to top button