জেনে নিন কোন সময় ঘুমালে শিশু হবে অনেক মেধাবী ও বুদ্ধিমান!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মেধাবী শব্দটা আমাদের সকলের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি শব্দ । আমরা প্রত্যেকেই মেধাবী হতে চাই । কারণ মেধাবী হলে ক্লাসের ফার্স্ট বেঞ্চে সিট পাওয়া যায় ।পরীক্ষার চাকরিতে আগে সুযোগ পাওয়া যায় ।এমনকি সমাজে এক আলাদা ভাবমূর্তি তৈরি করা যায় । কেউ কেউ অতিরিক্ত পড়াশোনা করার পর মেধাবী হয় আবার কেউ কেউ জন্মগত মেধাবী হয় । কিন্তু এই জন্মগত মেধাবী তৈরি করার একটি বিশেষ প্রক্রিয়ায় রয়েছে । আপনি কি জানেন সেটা? আপনি চাইলেই কিন্তু আপনার বাচ্চাকে ছোটবেলা থেকে মেধাবী ছাত্র তে পরিণত করতে পারবেন ।

কিভাবে জানাবো আজকের প্রতিবেদন। একজন মা অবশ্যই চাইবেন যে তার সন্তান যেন অত্যন্ত মেধাবী হয় । ভালো করে পড়াশোনা করে এবং পড়াশোনা করার পর যাতে একটা চাকরি পেয়ে নিজেকে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে । কিন্তু কখনো কখনো দেখা যায় যে কোন কোন বাচ্চার মেধা অত্যন্ত দুর্বল হয় ।অর্থাৎ কোন কিছু ভুলে যাওয়া বা সহজে মুখস্ত না করা এই ধরনের ঘটনা । তাই মাঝে মধ্যে অনেক বাচ্চা মধ্যে দেখা যায় তার পিছনে অবশ্য রয়েছে বড়সড় একটি কারণ ।কি সেই কারণ ? সেটা জানানো হবে আজকের এই প্রতিবেদনে ।

তবে এইটুকু জেনে রাখ যে এই মেধা শক্তি নির্ভর করে শুধুমাত্র ঘুমের উপর । কিন্তু কখন ঘুমালে কাজে দেবে সেটি জানানো হবে এই প্রতিবেদনে । দেখুন আমরা যতই কাজ করি না কেন সেই সব কিছু নির্ভর করে আমাদের স্মৃতি শক্তির উপর স্মৃতিশক্তিকে সুস্থ স্বাভাবিক এবং সতেজ রাখা অত্যন্ত জরুরী । সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে যে সমস্ত বাচ্চারা দুপুর বেলায় ঘুমায় তাদের কিন্তু মেধা শক্তি এবং কোন কিছু শেখার আগ্রহ অন্যান্য বাচ্চাদের তুলনায় যথেষ্ট পরিমান আলাদা হয় তার পাশাপাশি বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে যে সমস্ত শিশুরা এখনো পর্যন্ত স্কুলের গন্ডি ছুঁয়ে দেখেনি তাদের অতি অবশ্যই অন্তত এক ঘণ্টা ঘুম জরুরি ।

এতে স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায় এবং শেখার ক্ষ-মতা বেড়ে ওঠে সময়ের সাথে সাথে । একটি পরীক্ষা করে দেখা গেছে যেখানে বাচ্চাদের কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একদলকে দুপুরে ঘুমাতে দেওয়া হয়নি এবং অন্য দলকে দুপুরে পর্যাপ্ত পরিমাণে দেওয়া হয়েছে । তার পরদিন সকাল বেলায় তাদের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল এবং যারা দুপুরে ঘুমায়নি তাদের মধ্যে ৩৫% বিষয়গু-লি মনে রাখতে পেরেছিল এবং যারা দুপুরে ঘুমিয়ে ছিল তাদের মধ্যে ৭৭% বিষয়গুলোকে মনে রাখতে পেরেছিল । এবং এই ঘটনাগুলো থেকে এমনটা প্রমাণিত হয় যে হলেই দুপুরে ঘুমালে বাচ্চাদের স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

Back to top button