ভেনেজুয়েলায় প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম ১ টাকা, ভারতে কেন ১০২ টাকা, জানুন আসল সত্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজায় রাজায় যুদ্ধ হয় প্রাণ যায় প্রজার । ঠিক এরকম ধরনের একটা প্রবাদ বাক্য আমরা হয়তো অনেকেই শুনে থাকি । এবার তার পরিষ্কার চিত্র দেখতে পাচ্ছি গোটা রাজ্যবাসী তথা দেশবাসীর । যেখান থেকে আপনারা হয়তো বুঝতে পারছেন না যে আমি কি ধরনের কথা বলতে চলেছি । কিন্তু এটুকু নিশ্চিত যে আমার সাথে সহমত হবেন আপনি যখনই এই প্রতিবেদনটি পড়তে শুরু করবেন । আমি এই মুহূর্তে ভারতের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয় পেট্রোল এবং ডিজেলের কথা বলতে চলেছি ।

আচ্ছা আপনাদের সাধারণ মনে প্রশ্ন আসতে পারে না যে যেখান থেকে পেট্রোল ক্রয় করা হয় সেই দেশে মূল্য এত কম থাকার পরও এত চড়া দামে কেন বিক্রি হচ্ছে ভারতবর্ষে পেট্রোল ডিজেল । তার উত্তর জানাও আজকের এই প্রতিবেদন। ২০১০ সালে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং পেট্রোল এর উপর নিয়ন্ত্রণ তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ডিজেলের উপর পেট্রোল নিয়ন্ত্রণ পেট্রোলের দাম কত টাকা দামে বিক্রি হবে দেশে পেট্রোল এবং ডিজেলের এমনটা কথা ছিল কিন্তু অপরিশোধিত তেল ।

যেখানে ৬০-৭০ টাকা ব্যারোল হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে সেখানে ভারতবর্ষে পেট্রোল এর জন্য চোকাতে হচ্ছে ১০২ টাকা । ভারতবর্ষের কোন কোন রাজ্যে আবার পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম সেঞ্চুরি করেছে ।একটা তথ্য বলছে যে রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকারের ট্যাক্স ঘরের জন্য এই ধরনের দামের দিক হচ্ছে। ইউনাইটেড আমেরিকা অর্থাৎ আমেরিকাতে যেখানে প্রতিটি নাগরিকের বার্ষিক আয় দুই থেকে চার লক্ষ টাকা সেখানে তাদেরকে প্রতি লিটার তেলের জন্য দিতে হয় ১৩৩ টাকা করে

এবং যেখানে ভারতবর্ষের প্রতিটি মানুষের গড় আয় ১৫ হাজার টাকা করে সেখানে মানুষকে দিতে হচ্ছে ১০২ টাকা করে পেট্রোল । যার ফলে সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের পরিবার রীতিমতো মাথায় হাত পরে গেছে এবং অন্যান্য দেশের তুলনায় কিন্তু ভারতে পেট্রোলের দাম অধিকমাত্রায় বেশি । এই বিষয়ে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান বলেছিলেন যে পেট্রোল থেকে যে কর আদায় করা হয় সেটি জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যবহৃত হয়েছে অর্থাৎ ভ্যাকসিন কেনাবেচার কাজে ব্যবহৃত হয়েছে ।

Back to top button