দারুন সুখবর! দুয়ারে সরকার প্রকল্পে প্রচুর মহিলা কর্মী নিয়োগ! জানুন কিভাবে করবেন আবেদন।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- একুশের নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সবথেকে বেশি জনপ্রিয় প্রকল্প ছিল লক্ষীর ভান্ডার এবং দুয়ারে রেশন প্রকল্প। প্রথম প্রকল্প অর্থাৎ লক্ষীর ভান্ডারে জেনারেল কাস্ট মহিলারা প্রতিমাসে 500 টাকা এবং এসসি ক্যাটাগরির মহিলারা প্রতিমাসে হাজার টাকা করে পাবেন।স্বাভাবিকভাবেই রাজ্যের মহিলাদের মধ্যে এই প্রকল্পটি মাত্রাতিরিক্ত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

ঠিক একই রকমভাবে জনপ্রিয়তা পেয়েছে দুয়ারে রেশন প্রকল্প।এই প্রকল্পের মাধ্যমে খুব সহজেই মানুষের দুয়ারে পৌঁছে যাবে প্রতি সপ্তাহের রেশন।কোন রকম সমস্যার সম্মুখীন না হয় এই রেশন নিতে পারবেন সাধারন মানুষ। আগামী কিছুদিনের মধ্যেই এই দুটি প্রকল্প সর্বস্তরে চালু হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই এই প্রকল্প দুটিকে সঠিকভাবে রুপায়ন করার জন্য একের পর এক বৈঠক হয়ে চলেছে। এরই মধ্যে আবারও রাজ্যের মহিলাদের জন্য সুখবর জানিয়েছে নবান্ন। জানা যাচ্ছে যে খুব শীঘ্রই দুয়ারে রেশন প্রকল্পে চাকরি পেতে চলেছেন রাজ্যের মহিলারা।

তবে কি ধরনের কাজ করতে হবে তাদের, এবং বেতন বা যোগ্যতা কি হবে! আসুন জেনে নেওয়া যাক এই প্রকল্পের বিস্তারিত। প্রসঙ্গত বিধানসভা ভোটে জয়লাভ করে রাজ্যে ক্ষমতায় আসলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালু করার কথা জানিয়েছিলেন। দেখা যায় বিপুল ভোটের ব্যবধানে রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন হতে চলেছে।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে রেশন লাভ করার জন্য ডিলারের কাছে গ্রাহকদের যাওয়ার কোনো প্রয়োজন হবে না।জানা যাচ্ছে যে রাজ্যের প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতে মোট 10 জন ভিলেজ পার্সন নিয়োগ করা হবে। যারা এর প্রকল্পের চাল, ডাল প্রভৃতি মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দিতে সাহায্য করবে। এই ব্যক্তিদের প্রতিদিন 386 টাকা বেতন হিসেবে দেওয়া হবে। এই কাজে লোক নিয়োগের দায়িত্ব থাকবে বিডিও অফিস এবং গ্রাম পঞ্চায়েতের হাতে।যেসব মহিলারা এই কাজে যোগ দিতে ইচ্ছুক তারা নিকটবর্তী বিডিও অফিস বা পঞ্চায়েতে যোগাযোগ করতে পারেন। নিয়োগের বাদবাকি প্রক্রিয়া সেখান থেকেই জানা যাবে।

Back to top button