পেট্রোল ও ডিজেলের দাম নিয়ে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের! সস্তা হবে? নাকি আরো বাড়বে পেট্রোপণ্যের দাম? চিন্তায় সাধারণ নাগরিক!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বিগত কয়েক মাস ধরে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের কপালে চিন্তার অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম । তার সাথে সাথে সেই তালিকায় নাম জড়িয়েছে রান্নার গ্যাসও । আমরা দেখেছি যে ভারতবর্ষে প্রতিনিয়ত কিভাবে বেড়ে চলেছে বিভিন্ন আধুনিক যানবাহনের সংখ্যা । যানবাহন সংখ্যা যত বাড়ছে ততই বেড়ে চলেছে পেট্রোল এবং ডিজেলের চাহিদা ।

বাড়ছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম । বেশ কয়েক মাস ধরে যে হারে বেড়ে চলেছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম চিন্তাগ্রস্থ হয়ে পড়েছে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষেরা । এই পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম মূল্য বৃদ্ধির জন্য একাধিকবার বিভিন্ন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে দেখা গেছে বিক্ষোভের চিত্র । কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করে বিভিন্ন বার টুইট বা বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে বিভিন্ন রাজ্য সরকার ।কিন্তু তাতেও কোনো রকম কোনো ফল হয়নি ।

প্রতিনিয়ত লাগামছাড়া বেড়েছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম । কিন্তু এবার হয়তো শুক্রবার আসতে চলেছে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষের জন্য । কারণ এই সংক্রান্ত একটি বৈঠক কেন্দ্রীয় সরকার নিতে চলেছে ১৭ সেপ্টেম্বর এবং এই বৈঠকে ফলে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম অনেকটা কমতে পারে বলে মনে করছে বিভিন্ন অর্থনীতিবীদ । এই বৈঠক সফল হলে পেট্রোল ডিজেলের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ জি এস টি হার ২৮ শতাংশ।

আর‌ এই তেলের খুচরো বিক্রির দুই তৃতীয়াংশ দিতে হয় শুল্ক, সেস ও‌ ভ্যাট‌ বাবদ। কিন্তু এতে জি এস টি লাগু হলে পেট্রোল ডিজেলের দাম প্রায় অর্ধেক হয়ে যাবে বলেই মনে করছেন বিভিন্ন অর্থনীতিবিদ। যার ফলে সত্যিই সাধারণ মানুষের মধ্যে খুশির আবহাওয়া ছড়িয়েছে। যানবাহন ছাড়া এখন রাস্তা ঘাটে চলাফেরা করা প্রায় অসম্ভব। আর এই জ্বালানি তেলের দাম প্রায় অর্ধেক হয়ে গেলে এই করোনা পরিস্থিতিতে মানুষ যথেষ্ট উপকৃত হবেন একথা বলার অপেক্ষা রাখেনা ।

Back to top button