মুখ থেকে ব্রণর কালো দাগ চিরতরে মুছে ফেলুন মাত্র 3 বার এই ঘরোয়া ফেসপ্যাক ব্যবহার করেই! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আর মাত্র একটা দিনের অপেক্ষায় তার পরেই শুরু হতে চলেছে মহা উৎসব দুর্গাপূজা। বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব হিসেবে পরিচিত এই পুজোতে প্রতিটি মানুষ চায় নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে। শুধুমাত্র পোশাক-আশাক মানুষকে আকর্ষণীয় করে তোলে তেমন কিন্তু নয়। তার পাশাপাশি শরীরের গঠন এবং ত্বকের বর্ণ কিন্তু এই আকর্ষণীয় করে তোলার ক্ষেত্রে সাহায্য করে। কিন্ত অনেকসময় দেখা যায় যে পুজোটি প্রাক্কালে মুখে ব্রণ ও ফুসকুড়ি জাতীয় জিনিসের প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে।

এমনকি ত্বক হয়ে উঠছে কালচে। সে ক্ষেত্রে অনেকেই চিন্তিত হয়ে পড়েন এবং নামী দামি ক্রিম ব্যবহার করা শুরু করে দেন ।কিন্তু আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদেরকে খুব সহজ পদ্ধতির একটি স্কিন হোয়াইট রেমিডি এর কথা বলতে চলেছি। সেটি মাত্র তিনবার ব্যবহার করলে আপনার ত্বক ঝলমলে হয়ে উঠবে তার পাশাপাশি ব্রোনো ফুসকুড়ি দূর হয়ে যাবে। ব্রণ বা ফুসকুড়ি ত্বকের একদমই ভেতর থেকে উপরের দিকে উঠে আসে।

তাই এটি করা অত্যন্ত জরুরি এবং অনেক সময় দেখা যায় হাত দিয়ে এটিকে দূর করার ফলে সেখানে একটি কালো রঙের দাগ ছোপ পড়ে যায় যা আপনাকে করে তোলে বিভৎস পরিমাণে কুৎসিত ।তাই এই রেমেডি ব্যবহার অত্যন্ত জরুরী। প্রথমেই আমরা জেনে নেবো তৈরি করতে কি কি উপকরণ এর প্রয়োজন। এই রেমেডি তৈরি করার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে ২ চামচ নিমের পাতার গুড়া, ১ চামচ শষার পেষ্ট, ২ চামচ টক দই ও ১/২ চামচ হলুদ গুড়া।

প্রথমে একটি বড় পাত্রে এবং তার মধ্যে সমস্ত উপকরণ গুলি কে নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। লক্ষ্য রাখবেন যাতে কোনো রকম কোনো ত্রুটি না থাকে। বেশ ভালো করে মিশে নিতে হবে। তারপর এই ফেসপ্যাকটি আপনাকে ব্রণ এবং গালের চারিপাশে লাগিয়ে রাখতে হবে। তারপর যতক্ষণ না এটি শুকিয়ে যাচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। যখন এটি শুকিয়ে যাবে তখন আপনি ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিতে পারবেন। প্রথমবার ব্যবহার করার সাথে সাথে আপনি এর প্রভাব বুঝতে পারবেন। মাত্র তিনবার লাগিয়ে নিলেই আপনার ত্বক হয়ে উঠবে ঝলমলে তার পাশাপাশি একেবারে ব্রণ মুক্ত হয়ে উঠবে আপনার ত্বক।

Back to top button