জেনে নিন আপনার জনপ্রিয় চরিত্র ‘জবা’ -র আসল নাম, বয়স সহ সমস্ত তথ্য! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা হয়তো ভাবি যে যারা অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত থাকে সেই সমস্ত অভিনেতা এবং অভিনেত্রী দের জীবন অত্যন্ত ম-সৃণ হয় । তাদের জীবনে থাকেনা কোন টাকা পয়সার অভাব বা কষ্টের ছোঁয়া । কিন্তু এই ঘটনাকে মিথ্যে প্রমাণ করে দিয়েছে এমন বহু অভিনেত্রী বা অভিনেতার জীবন কাহিনী রয়েছে আমাদের চোখের সামনে । যেমন ধরুন জবা বা পল্লবী শর্মা । যাকে প্রথমবারের মতন দেখা গিয়েছিল কে আপন কে পর ধারাবাহিক মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করতে।

হ্যাঁ আমরা প্রত্যেকে জানি যে পল্লবী শর্মা তার অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করেছিলেন দর্শকদের মন কিন্তু এর মাঝে আবার ক-টুক্তি বা হা-সির খো-রাক হয়েছেন বিভিন্ন জনের কাছ থেকে । কারণ পড়াশোনা না জানা মেয়েটির হঠাৎ করে উকিল হয়ে যায় । তার পাশাপাশি মাথা ঠান্ডা রেখে সক্রিয় একটি বোমকে নিষ্ক্রিয় করে ফেলে মুহূর্তের মধ্যে । যার ফলে রীতিমতো তাকে স-মালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছিল । কিন্তু তার বাস্তব জীবনের গল্প যদি আপনি জানেন তারা রীতিমত অবাক হবেন এবং ভাববেন যে এত কষ্ট করেও কিভাবে সবার সামনে হাসিমুখে বিরাজ করে পল্লবী শর্মা ।

কে এই পল্লবী শর্মা? কি তার পরিচয়? জীবনের কাহিনী কেমন এব্যাপারে জানতে উৎসাহ প্রকাশ করেছেন অনেকেই । কিন্তু তেমন ভাবে কোনো তথ্য জানা যায়নি । বেশ কিছুদিন আগে জি বাংলায় অনুষ্ঠিত হওয়া দিদি নাম্বার ওয়ান রিয়েলিটি শোতে উপস্থিত ছিলেন পল্লবী শর্মা । এবং সেখানেই তিনি তুলে ধরেন তার জীবনের কঠিন সংগ্রাম ও লড়াইয়ের কথা যা আজকের প্রতিবেদন মাধ্যমে আপনাদের জানাবো।

পল্লবী শর্মা দিদি নাম্বার ওয়ানে এসে জানিয়েছেন যে তার জীবন মোটেও মসৃণ নয় । জীবনে অনেক দু-র্ঘটনা ঘটে গেছে । তিনি যখন ক্লাস টুতে পড়তেন তখন তার মায়ের ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে । তখন তার দাদা প্রায়ই চিকিৎসার জন্য ব্যাঙ্গালোর চেন্নাই যাতায়াত করতো । সেই অবস্থাতেই তিনি সময় কাটাতেন তার পিসির কাছে । আর সেখান থেকেই শুরু হয় অভিনয় জগতে আসার পথ চলা।

এর পাশাপাশি তিনি জানান যে যেহেতু তার পিসি অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত ছিল । তাই পিসির সাথে অধিকাংশ সময়ই স্টুডিওতে যেতেন তিনি । সেই সূত্রে পরিচালকদের সাথে পরিচয় হয়ে যায়। পরবর্তী ক্ষেত্রে বিভিন্ন কাজের জন্য অফার আসতে শুরু করে তার কাছে। কিন্তু তিনি যখন মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন তখন তার বাবা মারা যান। সেই অবস্থায় দাঁড়িয়ে মা-নসিকভাবে ভে-ঙ্গে না পড়ে তিনি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন সফলভাবে । তার পাশাপাশি বাবা-মাকে সামনে রেখেই এগিয়ে চলেছে জীবনে কঠিন থেকে কঠিনতম পথ গু-লি ।

Back to top button