শিশুর পাঁচ বছর বয়স হবার আগেই শিশুকে যে বিষয়গুলো শেখালে শিশু হয় বুদ্ধিমান-মেধাবী ও চরিত্রবান!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা প্রত্যেকেই চাই যে আমাদের ছেলে বা মেয়ে সন্তান যেন ভবিষ্যতে মানুষের মতো মানুষ হতে পারে । এবং এই মানুষের মত মানুষ হওয়ার জন্য ক-ঠোর প-রিশ্রম করে অভিভাবকরা । কিন্তু আপনারা হয়তো জানেন না জন্মের পাঁচ বছরের মধ্যেই চরিত্র গঠনের জন্য উপযুক্ত সময় ।তাই পাঁচ বছর বয়স হলে আপনার শিশুকে এই ধরনের শিক্ষা গুলো দেন । যার ফলে আপনার শিশুর ভবিষ্যতে যেন মানুষের মতো মানুষ হতে পারে । এবং এই সমস্ত শিক্ষাগুলি বাড়ি থেকে শুরু হয় এর জন্য বাইরে কোথাও টাকাপয়সা করার কোনো দরকার পরবে না।

সততা :- সততা হল মানব দেহের বা মনুষ্য প্রজাতির একমাত্র সবথেকে বড় মূল্যবান অহংকার । একদমই ঠিক শুনেছেন তাই আপনার বাচ্চাকে প্রথম থেকে শেখান যেন চেয়ে সত্য কথা বলে । মিথ্যে প্রশ্রয় যেন সে কোনদিন না নাই । যে কোন বিষয়ে সততাকে যেন সবার সামনে সত্যতা কে আঁকড়ে ধরতে পারে সে সে বিষয়ে প্রতিনিয়ত সেখানে তাকে ।

দায়িত্ববোধ :- কথাটা শুনলে কেমন একটা হাসি লাগলেও আপনার বাচ্চাকে ছোটবেলা থেকেই দায়িত্ববোধের শিক্ষা দেন । কারণ অনেক বাচ্চা ছেলে মেয়েরা নিজের খেলনা জামাকাপড় এমনকি বইখাতা ঠিকঠাক ভাবে গুছিয়ে রাখতে পারেনা । তার পাশাপাশি এলোমেলো করে দেয় সে সমস্ত জিনিসপত্র । তাই ছোটবেলা থেকেই বাচ্চাদেরকে শিক্ষা দেন যেন তার নিজের কাজ নিজে করতে পারে অন্যের উপর যেন না চাপিয়ে দেয় ।

সংকল্প:- সংকল্প ছাড়া কোন বাচ্চা তার কাজে সাফল্য অর্জন ক’রতে পারে না। এটি শুধু বাচ্চার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। সংকল্প ছাড়া কেউ কোনদিন জীবনে সাফল্য অর্জন ক’রতে পারে নি। তাই এই বিষয়টির স’ঙ্গে ছোট থেকে বাচ্চাদের পরিচয় করে দিন।

Back to top button