অসংলগ্ন মন্তব্য করে আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলেন রানু মন্ডল! তুমুল ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ফের আরো একবার বেফাঁস মন্তব্য করে বি-পাকে পড়লেন রানু মন্ডল যা থেকে গোটা সাইবার দুনিয়াতে শুরু হয়েছে ব্যাপক স-মালোচনা এবং জল্পনা । ভাগ্য মানুষকে উপরে তুলে দেয় । আবার কখনো কখনো নামিয়ে আনে বাস্তবের মাটিতে । এর জ্ব-লন্ত উদাহরণ হল রানু মন্ডল । স্টেশন চত্বরে ভিক্ষা করে দিন কাটত রানু মন্ডলের । কিন্তু তার কাছে ব্র-হ্মাস্ত্র হিসেবে ছিল তার কন্ঠস্বর ।

প্রশিক্ষণ ছাড়াই অসম্ভব সুন্দর ভাবে তিনি যে কোন গানকে উপস্থাপন করত স্টেশন চত্বরে । ঠিক তেমনই ছিল একদিন যেদিন তার দেখা হয় অতিন্দ্র এর সাথে । সে একজন সমাজ সেবক । রানু মন্ডলের গাওয়া গানটি কে রেকর্ড করে তুলে ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে সকলের সামনে আর তারপরের ঘটনা আমাদের সকলেরই জানা । এমন কোন জায়গা নেই যেখানে পৌঁছায় নি রানু মন্ডল এর নাম এমনকি বলিউডের বিখ্যাত গায়ক হিমেশ রেশমিয়ার সাথে ডুয়েট করতে দেখা গেছে রানু মন্ডল কে ।

তার গান পুজো মণ্ডপ থেকে শুরু করে জন্মদিনের পার্টি উৎসব-অনুষ্ঠান সব জায়গাতে দ-খল করেছিল সেই সময় । তবে অহংকার এর জন্য পুনরায় আবার তাকে ফিরে আসতে হয়েছিল তার আগের অবস্থা তে। এমনটা মনে করা হয় যে রানু মন্ডল যেহেতু না চাইতে অনেক কিছু জিনিস অর্থাৎ নাম খ্যাতি টাকাপয়সা জনপ্রিয়তা পেয়ে গিয়েছিলো তাই তার শরীরের মধ্যে জন্মেছিলো বিপুল পরিমাণে অহংকার ।

এবং এই অহংকার জন্য তিনি তার অনুরাগীদের সাথে এবং সাংবাদিকদের সাথে দু-র্ব্যবহার করতে শুরু করে । যার ফলে সাধারণ মানুষ তাকে আবার অপছন্দ করতে শুরু করে ।সেই সূত্রে তিনি আবার ফিরে যান রানাঘাট স্টেশন চত্বরে নিজের বাড়িতে । লকডাউন এর সময় তার অবস্থা ভীষণ গরম হয়ে গেছিলো তা আমরা প্রত্যেকে জানি । তবে সম্প্রতি এক বেফাঁস মন্তব্য করে ফেঁ-সে গেলো রানু মন্ডল । আমরা জানি যে নারান মন্ডলের সাক্ষাৎকারের জন্য বিভিন্ন ইউটিউবাররা তার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ।

তাদের সাথে গল্প করে খাবার দাবার রান্না করে এবং তার ইন্টারভিউ বা সাক্ষাৎকার নিয়ে চলে আসে । ঠিক তেমনি এক ইউটিউবার সেদিন গিয়েছিল তার বাড়িতে ইন্টারভিউ নিতে । এবং কথার মাধ্যমে তিনি রানু মন্ডল কে জিজ্ঞেস করেন যে হিমেশ রেশমিয়া কে এখন কেমন লাগে । বিন্দুমাত্র সময় নেয়নি এই প্রশ্নের উত্তর দিতে রানু মন্ডল । তিনি হঠাৎ করে বলেছেন এইতো সেদিন দেখলাম টেম্পো করে আমার বাড়ির জানলার পাশে বালি ফেলে গেল । এই মন্তব্য করার পর হাসাহাসি শুরু হয়েছে গোটা নেট দুনিয়ায় যা ভাইরাল হয়েছে সারা দুনিয়াতে ব্যাপক পরিমাণে ।

Back to top button