কোটিপতি হতে চাইলে আশ্বিন মাসে বাড়িতে নিয়ে আসুন এই 2 টি ফল! মিলবে দারুন উপকারিতা! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের এই ভারত বর্ষ বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী দেশ । ভারতবর্ষের প্রতিটি প্রান্তরে এর চিত্র আলাদা । একদম আলাদা হয় । কখনো কখনো এমন কিছু ধরনের মিষ্টি কথা বা প্রবাদ বাক্য আমাদের সামনে উপায় আছে যেগুলোর শুনে আমরা হয়তো অবাক হয়ে যায় এবং এই ধরনের নীতি কথা আমাদের ব্যস্ত জীবনে ব্যাপক মাত্রায় প্রভাব ফেলে সেবা করে নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না ।

একথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই’ বহুযুগ ধরে দেবাদিদেব মহাদেবের পুজো হয়ে আসছে এবং সপ্তাহের সোমবার তার মাথায় জল ঢালার প্রচলন দেখা যায় ভারতবর্ষের বিভিন্ন জায়গায় । প্রতি সোমবার শিবলিঙ্গের উপর জল। ঢালার একটা প্রচলন দেখা যায় বহু যুগ ধরে। এমনটা মনে করা হয় যে শিবলিঙ্গের উপর জল দিলে মানসিক দুঃখ কষ্ট থেকে মুক্তি পাওয়া যায় ।

যদি আপনি কোনো কাজের জন্য আটকে যাচ্ছেন বাধা সৃষ্টি হচ্ছে তাহলে এই শিবলিঙ্গ আপনাকে সেই বাধা থেকে মুক্ত করবে । তবে জল ঢালার পাশাপাশি এমন অনেক বিষয় রয়েছে যেগুলি আপনাকে মানসিক প্রশান্তি দেবে । আজকের এই প্রতিবেদনের আমি এমন দুটি ফলের কথা বলতে চলেছি যেটা আপনি শিবলিঙ্গের উপর অর্পণ করলে মুক্তি পাবেন সব বাধা থেকে । জীবন হয়ে উঠবে রঙিন ।

আমরা জানি যে শিব এর পুজোতে ধুতুরা ও আকন্দ ফুল ব্যবহার করা হয় । তার পাশাপশি এর ফল ও কিন্তু ব্যাবহৃত হয় এই পুজোতে । এমনটা পুরাণে উল্লেখ আছে যে ধুতুরা ফুল ও ফল দিয়ে মহাদেব কে শান্ত করা যায় । সন্তুষ্ট করা যায় । তাই এই আশ্বিন মাসে জল ঢালার পাশাপাশি এই ফল দিয়ে অর্পণ করুন । মিলবে দল হাতেনাতে। দ্বিতীয়ত হলো হরতকি । এই ফল অত্যন্ত বেশি ব্যবহৃত হয় শিবলিঙ্গ পূজা তে ।

তাই রাস্তাঘাটে বাজারে দশকর্মা ভান্ডার যদি আপনি এই ফল দেখতে পান তাহলে বিন্দুমাত্র বিলম্ব না করে সেটি বাড়িতে নিয়ে আসুন এবং প্রতি সোমবার দিন বেলপাতার সাথে শিবের মাথায় জল ঢালার পাশাপাশি এই ফল অর্পণ করুন । দেখবেন আপনার মানসিক চিন্তা ও তার পাশাপাশি শারীরিক-মানসিক সবকিছু কেমন নিমিষের মধ্যে উধাও হয়ে গেছে।

Back to top button