আধার কার্ড নিয়ে চালু হলো ভ’য়’ঙ্কর নয়া নিয়ম, চালু হলো নীল আধার কার্ড, কাদের কাদের করাতে হবে, জেনে নিন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এবার বড়োসড়ো আপডেট নিউ ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া । একদমই ঠিক শুনেছেন । আধার কার্ড সংক্রান্ত যাবতীয় আপডেট আমরা সাধারণত এই সংস্থা বা এই সংস্থার ওয়েবসাইট থেকে পেয়ে থাকি । বলা বাহুল্য গোটা ভারতবর্ষে আধার কার্ড তৈরি এবং প্রেরণ করার দায়িত্ব রয়েছে এই সংস্থার উপর । কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সম্প্রতি একটি নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে ।

যেখানে বলা হয়েছে বেশ কিছু আপডেট এর কথা এবং এই আপডেট বা সংযুক্তিকরণ আগামী দিনে বড়সড় পরিবর্তন আনতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের । আমরা সাধারণত আধার কার্ডে যে সমস্ত তথ্য পেয়ে থাকি একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের বা যুবক-যুবতীদের সেই সমস্ত তথ্য কিন্তু আমরা এক নিমিষে পাইনা সদ্যজাত সন্তানের ।

এবার সেই সদ্যোজাত সন্তানকে এবং ৫ বছরের উর্ধ্বে সন্তানকে এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে বাল আধার কার্ডের ঘোষণা করা হয়েছে । কি এই আধার কার্ড এবং কিভাবে মিলবে এর সুবিধা তা বিস্তারিত জানব আমরা আজকের এ প্রতিবেদনের মাধ্যমে । বাল আধার কার্ড বলা হচ্ছে যে যে সমস্ত সদ্যজাত সন্তানের বয়স পাঁচ বছরের নিচে তারা তাদের পরিচয় পত্র হিসেবে এই আধার কার্ড তৈরি করে রাখতে পারবে ।

তার পাশাপাশি বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্কুল বিমানবন্দর রেলওয়ে টিকিট হোটেল বুকিং ইত্যাদি ক্ষেত্রে যে পরিচয় পত্রের দরকার পড়ে সেই পরিচয় পত্র হিসেবে তারা এই আধার কার্ড দেখাতে পারে । স্কুলে যে সমস্ত মিড ডে মিলের প্রকল্প শুরু হয়েছে সেই সুবিধা পাওয়ার জন্য এই আধার কার্ড থাকা বাঞ্ছনীয় । তার পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পগুলি তে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য এই এই কার্ড থাকা অতি অবশ্যই দরকার । এটি তৈরি করতে পারবেন আপনি আপনার নিকটবর্তী আধার এনরোলমেন্ট সেন্টার এ গিয়ে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ।

সরকারের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে এই আধার কার্ডে শিশুর কোন আঙ্গুলের ছাপ বা চোখের প্রিন্ট অর্থাৎ আইরিস নেওয়া হবে না। শুধুমাত্র ছবি তুলে আধার কার্ড পেরন করা হবে এবং পাঁচ বছর ও ১৫ বছরে এই বায়োমেট্রিক আপডেট করতে হবে । কিন্তু তার আগে কোনো আপডেটের প্রয়োজন নেই ।এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফলে আগামী দিনে গোটা দেশের মানুষ সেটা সদ্যজাত সন্তান হতে পারে বা ৮০ বছরের বৃদ্ধ হতে পারে সবাইকে এক তালিকায় আনা যেতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

Back to top button