নাইনে পড়াকালীন গর্ভবতী! পরবর্তীতে ফাঁস গোপন ভিডিও, করিনা কাপুরের এই ৭ অজানা কেচ্ছা শুনলে অবাক হবেন আপনিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- করিনা কাপুর থেকে করিনা কাপুর খান বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রীর তালিকায় এই নামটি কিন্তু আমরা নিতেই পারি। দীর্ঘ সময় ধরে বলিউড ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন করিনা ওরফে বেবো। ২০০০ সালে রিফিউজে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড়পর্দায় পা রেখেছিলেন করিনা। এরপর ‘কভি খুশি কভি গম’ ছবিতে অভিনয় করে বলিউডে নিজের জায়গা শক্ত করে ফেলেন নায়িকা। এরপর একের পর এক সুপারহিট চলচ্চিত্র বলিউড কে উপহার দিয়েছেন ‘বেবো’।

তবে অভিনেত্রী হিসেবে দর্শকমহলে বিশেষ পরিচিতি থাকলেও তার ব্যক্তিগত জীবনে কিন্তু বিতর্কের অভাব নেই। সম্প্রতি গতকাল ৪২ বছরে পা রেখেছেন অভিনেত্রী। তবে তার বয়স বোঝার উপায় নেই। অভিনয় থেকে শুরু করে পারিবারিক জীবন সবকিছুতেই এগিয়ে রয়েছেন ‘বেবো’। রনধীর কাপুর এবং ববিতা শিবদাসানির এই মেয়ের অনেক কেচ্ছার কথাই কিন্তু আপনাদের অজানা। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে করিনা কাপুর খানের ব্যক্তিগত জীবনের কিছু উল্লেখযোগ্য বিতর্ক তথা কেচ্ছার কথা তুলে ধরা হলো।

১) প্রেমিক শাহিদ কাপুরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি ফাঁস:

অভিনেতা সইফ আলি খানকে বিয়ে করার আগে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত শাহিদ কাপুরের সঙ্গে প্রেম সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন করিনা।একবার ‘জব উই মেট’এর সেট থেকে দু’জনের ছবি ফাঁস হয়েছিল। সেখানে দু’জনকে বেশ ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। মুহূর্তেই সেইসব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায় আর অভিনেত্রীকে ব্যাপক বিতর্কের মুখোমুখি হতে হয়। যদিও পরবর্তীতে বিভিন্ন কারণে এই বিতর্ক ধামাচাপা পড়ে গিয়েছিল।

২)MMS বিতর্ক:

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না জনপ্রিয় এই বলিউড অভিনেত্রীর নাম জড়িয়ে ছিল এমএমএস বিতর্কেও। হিরোইন ছবিতে অভিনয় করেছিলেন করিনা। সেই ছবি থেকেই বেশ কিছু ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের ভিডিও নেট মাধ্যমে উঠে আসে এবং পরে তা এমএমএস বলে ছড়িয়ে যায়। তবে কখনোই এই কাণ্ডে মুখ খুলতে দেখা যায়নি অভিনেত্রী করিনা কাপুর খানকে।

৩)ঋত্বিকের সঙ্গে প্রেম:

কেরিয়ারের শুরুর দিকেই বলিউডের গ্রিক গড ঋত্বিক রোশনের সঙ্গে করিনার প্রেম সম্পর্কের কথা একেবারে ঝড়ের গতিতে তৎকালীন সংবাদপত্র আর ম্যাগাজিন গুলিতে ছড়িয়ে গিয়েছিল। তবে কখনোই কিন্তু ঋত্বিক বা করিনা এই সম্পর্ক স্বীকার করে নেননি। তাই এই বিষয়ে কোন রকমের সত্যতা জানা যায় না।

৪)ক্লাস নাইনে প্রেগন্যান্ট:

অভিনেত্রীর জীবনে সবথেকে বড় কেচ্ছা বলা যায় এই ঘটনাটিকে। বলিউডের একাংশের দাবি বেবো নাকি ক্লাস নাইনে পড়াকালীন প্রেগন্যান্ট হয়ে গিয়েছিলেন। যা নিয়ে পরবর্তীকালে কম চর্চা হয়নি। তবে কখনই কোন রকমের স্পষ্ট খবর কিন্তু সামনে আসেনি।

৫) সাইফ আলী খানকে বিয়ে:

নিজের কেরিয়ারের একেবারে চরমসীমায় থাকাকালীন আচমকায় অভিনেতা সাইফ আলী খানকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন করিনা।ডিভোর্সি সইফের সঙ্গে বিয়ে করার এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফলে প্রচুর পরিমাণে বিতর্কের মুখোমুখি পড়েছিলেন অভিনেত্রী। অনেকে নাকি অভিনেত্রীকে এও বলেছিলেন যে একজন ডিভোর্সিকে বিয়ে করলে তাঁর কেরিয়ার একেবারে শেষ হয়ে যাবে। তবে কোন কিছুতেই কিন্তু কান দেননি নায়িকা। বর্তমানে স্বামী আর দুই সন্তানকে নিয়ে চুটিয়ে সংসার করছেন করিনা কাপুর খান।

৬)ছেলের নাম নিয়ে বিতর্ক:

করিনা যখন তাঁর প্রথম সন্তানের নাম তৈমুর রেখেছিলেন, তখন তা নিয়েও প্রচণ্ড বিতর্ক হয়েছিল। পরে অভিনেত্রী জানান, তৈমুর নামটি তাঁদের পছন্দ বলেই রেখেছেন। এর নেপথ্যে কোনও ‘লুকনো’ কারণ নেই। তবে এখনো কিন্তু মাঝেসাজে সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলে ছেলের নাম নিয়ে অভিনেত্রীর উপরে নানান ধরনের মিম পোস্ট দেখতে পাওয়া যায়।

৭)সীতা চরিত্রের জন্য আকাশছোঁয়া পারিশ্রমিক দাবি:

এই ঘটনাটিকে কোন কেচ্ছা বলা না হলেও এর জন্য বিশাল পরিমাণে বিতর্কের মুখোমুখি করেছেন করিনা। রামায়ণ চলচ্চিত্রে সীতা চরিত্রের জন্য করিনা কাপুর খান কে নির্বাচন করা হয়েছিল। শোনা যায় এই চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রায় ১২ কোটি টাকার কাছাকাছি পারিশ্রমিক দাবি করেছিলেন নায়িকা। তাতেই সৃষ্টি হয় বিতর্ক। নেটিজেনদের একাংশ এরকম একটা চরিত্রের জন্য অভিনেত্রী এত বিশাল অংকের পারিশ্রমিক চাওয়ায় বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন বলা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button