“বউ হারালে বউ পাওয়া যায় রে পাগলা, কলাপাতায় ভাত খেলে বাংলা পাওয়া যায় না রে টাকলা”- বললেন চিরঞ্জিত চক্রবর্তী!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ২০২১ এর বিধানসভা ভোট হাইভোল্টেজ ভীষণভাবে ।  হাইভোল্টেজ এই কারণেই কারণ এবারের লড়াই ত্রিমুখী ল-ড়াই । একদিকে সংযুক্ত মোর্চা মাথা-চা-ড়া দিয়ে উঠছে । অন্যদিকে বিজেপি দ-খল করতে চাইছে এই বাংলাকে । আর অপরদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের জে-দ যে বাংলাকে কোনরকম ভাবে বহিরাগতদের হাতে তুলে দেওয়া যাবে না । এই নিয়ে চলছে তুমুল হা-ড্ডা-হা-ড্ডি ল-ড়াই । তবে শেষ কথা বলবে ভোটের ফলাফল।

আমরা এ ব্যাপারে অবগত যে অভিনয় জগতের একজন দা-পুটে অভিনেতা চিরঞ্জিত চক্রবর্তী । ২০১১ সালে বিধানসভা ভোটে বিধায়কের পদে প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি বারাসাত থেকে । তারপর ২০১৬ তে জয়লাভ করেন তিনি তার পর একের পর এক জনহিতকর কাজের সাথে যুক্ত হয়ে পড়েন অভিনেতা তথা বিধায়ক চিরঞ্জিত । তবে ফের আরো একবার বারাসাত থেকেই বিধায়ক হিসাবে প্রার্থী হয়েছেন তিনি ।

ভোটের রাজনীতিতে ক-টাক্ষ বিরোধীদের থাকবে মনটা খুব স্বাভাবিক । বি-রোধিতা ছাড়া রাজনীতির মঞ্চে ঠিক জমে ওঠে না ।আমরা এর আগে বিভিন্ন বিভিন্ন জনসভা থেকে বি-রোধীদ-লের মানুষজনদের কে ক-টাক্ষ করতে দেখেছি এবং পাল্টা প্রতিক্রিয়াও মিলেছে শা-সক দলের পক্ষ থেকে। এবার শা-সক দলের সাংসদ চিরঞ্জিত চক্রবর্তী গলায় শোনা গেল বিজেপি বিরোধী সুর । এমন ভাবে তিনি তুলোধোনা করলেন বিজেপি কে যা এর আগে কখনো কেউ করেনি ।

তিনি বলেন তার একটা বিখ্যাত ডায়লগ । ডায়লগ এর সাথে নতুন একটি কথা সংযোজন করেন তিনি । তিনি বলেন ‘বউ হারালে বউ পাওয়া যায় রে পাগলা কিন্তু বাংলায় এসে পাত পেড়ে খেলে বাংলা পাওয়া যায় না রে টাকলা’ । তার এই বক্তব্য ব্যাপক পরিমাণে ভাইরাল হয়েছিল সেই সময় সাইবার দুনিয়াতে । যদিও এটি দুই থেকে তিন মাস আগেকার একটি বক্তব্য । কিন্তু তবুও ভোটের বাজারে ফের আরও একবার মাথা-চা-ড়া দিয়ে উঠেছে ভিডিওটি । এবং এই ভিডিওতে তিনি অমিত শাহ নরেন্দ্র মোদি ও অন্যান্য বাকি সকলের কুকীর্তির কথা তুলে ধরেছিলেন।

Back to top button