য-ন্ত্র দিয়ে কান ফো-টা’তে গিয়ে ঘটলো হুলু-স্থূ’ল কান্ড, বে-কায়দায় পড়ে গেলেন শিশুর মা, তু-মুল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা যত উন্নত হচ্ছি তত উন্নত হচ্ছে আমাদের চাওয়া-পাওয়া গু-লি । এবং এই সেই চাওয়া-পাওয়া থেকেই প্রতিনিয়ত সৃষ্টি হচ্ছে নতুন কিছু । ঘরের যাবতীয় জিনিস থেকে পোশাক-আশাকের বিভিন্ন জিনিসপত্র আজকাল হাতের মুঠোয় এমনকি বাড়ির বাইরে বেরোতে হবে না দোরগোড়ায় এসে পৌঁছায় শুধুমাত্র একটি ফোন কলের মাধ্যমে আপনি বুঝতেই পারছেন যে আমরা ঠিক কতটা উন্নত হয়েছি। আমাদের বাড়ির যারা মেয়ে তাদের লক্ষ্য করবো যে অতীতকালে অর্থাৎ এর আগের প্রজন্মের বাড়ির মেয়েরা কানের এবং নাকের পড়ার জন্য শরীরে অঙ্গচ্ছেদ করত এবং সেটি হতো মূলত সুচ এবং সুতো দ্বারা ।

রীতিমতো সু-চ এর দ্বারা কা-নের পা-তলা চাম-ড়া কে এ পা-র ও পা-র ক-রা হতো- এবং তার সাথে সাথে নাকের চা-মড়া কেউ এ-পার-ও-পার ক-রা হ-তো । যার ফলে প্রচ-ন্ড ব্য-থা হতো এবং সেই ব্যথা বেশ কয়েকদিন দীর্ঘস্থায়ী হতো । কিন্তু যত উন্নত হয়েছে তত আবিষ্কৃত হয়েছে নতুন ধরনের য-ন্ত্র-পাতি । ঠিক তেমনি নাক কা-ন ফু-টো ক-রার য-ন্ত্র চলে এসেছে বাজারে। এখনকার দিনে যেকোনো ধরনের পার্লারে বা সেলুনে গেলেই আপনি দেখতে পারবেন সেই য-ন্ত্রটি।

ছোট্ট ব-ন্দুকের মতন য-ন্ত্রটি দেখতে । যার সাহায্যে অনায়াসে একদম ব্যথাহীন ভাবে নাক বা কান ফুটো করা যেতে পারে । এক জায়গায় নয় বরং বিভিন্ন জায়গাতে ফুটো করা যেতে পারে । আর সেই নাক ফুটো করতে গিয়েই বে-কায়দায় পড়লেন এক বাচ্চা মেয়ে ।কিন্তু সে এতটা পরিমাণ এর সাহসী ছিল যে অন্যান্য বাকি সমস্ত বাচ্চার মতন ভ-য় না পেয়ে কা-ন্না-কা-টি না করে স্থির হয়ে চুপচাপ সমস্ত কিছু সহ্য করেছে । তার কাছে সেই ঘটনাটি কিছুই ছিল না ।

সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সেখানে দেখানো হয়েছে যেএকটি বাচ্চা মেয়ে পার্লারে গিয়েছে কান ফুটো করাতে । তার সাথে উপস্থিত আছে তার বাড়ির লোকেরা । কিন্তু ভিডিওটি দেখলে আপনি বুঝতে পারবেন যে অন্যান্য বাকি সকল বাচ্চার মতন সে বাচ্চা মেয়েটি কোন রকম ভ-য় পে-য়ে যায়নি বরং সে চুপচাপ সাহসিকতার সাথে বসে রয়েছে এবং সমস্ত ঘটনাটিকে উপভোগ করছে । তার এই সাহসিকতার কুর্নিশ জানিয়েছে নেট পাড়ার অনেক মানুষ এবং সেই ভিডিও প্রকাশ্যে আশাতেই ঝ-ড়ের গ-তিতে ভাইরাল হয়েছে ।

Back to top button