বঙ্গোপসাগরে জোড়া ঘূর্ণবাত! টানা 48 ঘণ্টা কড়া সতর্কতা বাংলার বিভিন্ন জেলায়! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এবার জোড়া বিপদ হাজির হল সামনে । একটি নিম্নচাপ বা ঘূর্ণবাত রীতিমতো না-জেহাল করে দিয়েছিল এই রাজ্যবাসীর তার চিত্র না পরিষ্কার ভাবে দেখতে পেয়েছিলাম বেশ কিছুদিন আগে । এক নাগাড়ে একটানা বৃষ্টির ফলে রাজ্যের কি হাল অবস্থা হয়েছিল তা আমাদের প্রত্যেকের জানা । তবে সম্প্রতি আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন যে একটি নয় বরং দুইটি ঘূর্ণবাতের সৃষ্টি হয়েছে ।

পরবর্তী ক্ষেত্রে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে । কতটা প্রভাব পড়তে পারে দক্ষিণ বঙ্গের জেলা গুলির উপর সেই দিকে নজর রাখছে আবহাওয়াবিদরা । কি জানাচ্ছে তারা জানাবো আজকের প্রতিবেদন । আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের খবর অনুযায়ী বঙ্গোপসাগরের উপর একটি ঘূর্ণবাতের সৃষ্টি হয়েছে । অপরদিকে দক্ষিণ বাংলাদেশ আরেকটি ঘূর্ণবাতের সৃষ্টি হয়েছে ।

তার পাশাপাশি মৌসুমী অক্ষরেখার সক্রিয়তার জন্য প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প প্রবেশ করছে রাজ্যের মধ্যে এবং এর জেরে আকাশ মেঘলা থাকবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ।পাশাপাশি পশলা বৃষ্টি হতে পারে সেই সমস্ত জেলাগুলিতে।মৌসুমী অক্ষরেখা সক্রিয় বিহার ও গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। ডালটনগঞ্জ, জামশেদপুর হয়ে দিঘার ওপর দিয়ে দক্ষিণবঙ্গ হয়ে মৌসুমী অক্ষরেখা উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত।মধ্যপ্রদেশ রাজস্থানে রয়েছে নিম্নচাপ এবং ঘূর্ণাবর্ত।

নিম্নচাপটি ক্রমশ শক্তি হারাচ্ছে। আরব সাগরে আরো একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে মেঘলা আকাশ। সব জেলাতেই হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। ১০ টিরও বেশি জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় পরিস্থিতি এমনটাই থাকবে। মঙ্গলবার পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হতে পারে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে।

আজ রবিবার কলকাতা উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর হাওড়া হুগলি পূর্ব বর্ধমান বাঁকুড়া পুরুলিয়া ঝাড়গ্রাম এই জেলাগুলিতে বিক্ষিপ্তভাবে এক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা।পুরুলিয়া বাঁকুড়া পশ্চিম মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম এবং পশ্চিম বর্ধমান বীরভূমে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। বি-ক্ষিপ্তভাবে দু-এক পশলা বৃষ্টি হতে পারে এই জেলাগুলিতে। তবে মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হবে বলে জানা যাচ্ছে।

Back to top button