মাটির নিচে সন্ধান মিললো আরেক পৃথিবীর, যার মধ্যে রয়েছে আকাশ, খাল, বিল, পাহাড় ও ভিন্ন আবহাওয়া, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- গল্পে আমরা বিভিন্ন গল্প শুনেছি এবং এই গুহার গল্প শুনতে গিয়ে যে বিষয়টি আমাদের মধ্যে ধারণা হয়েছে সেটি হলো যেখানে অন্ধকার একটি পরিবেশ যার ফাঁকফোকর দিয়ে ঢুকবে স্বল্পমাত্রায় সূর্যের কিরণ । এবং সেখানে থাকে বি-ষাক্ত কিছু জ-ন্তু-জা-নোয়ার বা বি-ষাক্ত গ্যা-স ।যার ফলে সাধারণ মানুষ যদি সেখানে প্রবেশ করে তাহলে আর বেঁচে ফিরে আসতে পারে না ।এই ধরনের একটা চিত্র আমাদের মাথায় ভেসে ওঠে সব সময় । কিন্তু আলাদা গুহাচিত্র সম্পতি ফুটে উঠল সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যা দেখে এবং শুনে রীতিমত অ-বাক হবেন আপনি ।

আচ্ছা যদি আপনাদেরকে এই মুহূর্তে বলা হয় যে পৃথিবীতে রয়েছে এমন একটি গুহার মধ্যে রয়েছে আলাদা একটি পৃথিবী । ঠিক শুনেছেন সেখানে রয়েছে নদী-নালা খাল-বিল পুকুর এমনকি রয়েছে আকাশ মেঘ । এমন একটি গুহার কথা শুনলে আপনি নিশ্চয়ই অ-বাক হ-বেন । অবশ্যই অবাক হবার কথা । কিন্তু বাস্তবের চিত্র রয়েছে অনেকখানি কারণ সম্প্রতি চীনের এক প্রদেশ মিলেছে এরকম একটি গুহার সন্ধান ।

কিন্তু সেখানে স্থানীয় বাসীরা যাতায়াত করতে পারে । বাইরের কোন পর্যটক যাতায়াত করতে পারে না । যার ফলে গুহার ভেতর কার চিত্র এখন অব্দি প্রকাশ্যে উঠে আসেনি । তবে উঠে এলো এবার। কিন্তু সম্প্রতি চীনের চঙকিং প্রদেশে আবিষ্কার হয়েছে এমন এক গুহা, যে গুহার নিজিস্ব আলাদা আবহাওয়া ব্যাবস্থা রয়েছে। পৃথিবীতে যেমন আকাশ রয়েছে। আকাশে মেঘ এবং কুয়াশা রয়েছে। তেমনি এই গুহার ভেতরেও রয়েছে আলাদা আকাশ।

সেই আকাশে রয়েছে মেঘ ও কুয়াশা। শুধু তাই নয়। গুহাটির মধ্যে খাল, বিল, পাহাড়সহ রয়েছে আরো অনেক কিছু। চীনের এই গুহাটির নাম ‘ইয়ার ওয়াং ডং’।গুহা বিশেষজ্ঞ এবং ফটোগ্রাফারদের সমন্বয়ে গঠিত একটি দল ‘ইয়ার ওয়াং ডং’ গুহার গোপনীয়তা আবিষ্কার করেন এবং ভেতরের বেশ কিছু দুর্লভ ছবি তুলে নিয়ে আসেন। অভিযাত্রীদের মতে, গুহাটির ভিতরে মেঘ বালুকনা জলীয় বাষ্পসহ রয়েছে আলাদা আবহাওয়া যা অনেকটা শীতল। আবহাওয়ার পাশাপাশি আর্দ্রতাও শীতল।যার ফলে সেখানে সাধারণ মানুষের বেশিদিন বেঁচে থাকা সম্ভব নয়।

Back to top button