মুরগীর সামনেই মুরগীর ছানাদের খে-তে গেলো কো-ব’রা , রে’গে ঠো-কর মে-রে মে-রে কো-ব’রাকে শে-ষ ক-র’লো মুরগী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ফের আরও একবার মাতৃত্বের পরীক্ষা দিল এক মুরগি । একা জী-বন বা-জি রে-খে করলো ল-ড়াই সা-প এর সাথে । নিজের সন্তানের আর্তনাদ যেকোনো মা এর কাছে ক-ষ্ট-কর । সেটা মানুষ হোক বা জী-ব-জ-ন্তু । আমাদের প্রতিনিয়ত জীবনে এমন অনেক ঘটনাই ঘটে থাকে যা আমাদের হাসায়, কাঁ-দায়, বা অনুপ্রেরণা জাগায়। তার সাথে সাথে আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় যুক্ত এমন অনেক ভিডিও বা ছবি ভাইরাল হয় যা কখনো কখনো আমাদের অনুপ্রেরণা জায়গায় ,কখনো বা আমাদের হাসতে শেখায়, আবার কখনো আমাদর শিক্ষা দেয় বু-ক চি-তিয়ে শে-ষ নিঃ-শ্বাস অ-বধি ল-ড়াই এর ।

মা শব্দটি সবথেকে ছোট হলেও এটি পৃথিবীর সবথেকে শ-ক্তি-শালী এবং সাহসী একটি শব্দ। সে মানুষ হোক বা প-শু-পাখি বা জ-ন্তু । এই শব্দের মধ্যে জড়িয়ে আছে আবেগ, ভালোবাসা, ল-ড়াই ক-রার শ-ক্তি । কিন্তু এর সাথে মায়ের কি সম্পর্ক তা এখনো ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না তাইতো ? সম্প্রতি ফেসবুক একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে দেখা যায় এক সাহসী মায়ের ছবি। একটি সাহসী মুরগি মা এর ছবি ।

সাধারণত সা-প এমন এক ধরনের স-রী-সৃপ প্রা-ণী যাকে কমবেশি আমরা প্রত্যেকেই ভ-য় পা-য় । কারণ সাপের মধ্যে থাকে এমন এক ধরনের বি-ষ যা একবার শরীরে প্রবেশ করলে নি-মি-ষের মধ্যে ঘ-টতে পারে জী-ব-ন-না-শ । অর্থাৎ সা-পের ছো-বলে মানুষের আস্ত একটা জীবন চলে যেতে বেশি সময় নেয় না । কিন্তু এক্ষেত্রে এক ন-জি-র-বি-হীন ঘটনা দেখা গেল । সেখানে বিড়াল নিজেদেরকে এবং নিজের সন্তানদের বাঁ-চাতে নিজের প্রাণ বা-জি রা-খতে পিছপা হননি ।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, একটি বাড়ির মধ্যে বড় একটি জায়গাতে বেশ কয়েকটি ডিম পেড়েছে একটি মুরগি এবং সেই দিন গু-লিকে দেখতে পেয়েছে সেখানে থাকা একটি কো-বরা সা-প । সেই কো-বরা সা-পটা সেই ডিম খাবার জন্য তাদের দিকে আ-ক্র-ম-ণের জন্য রওনা হয় । কিন্তু তাদেরকে আগলে রেখেছিল তাদের মা । কাজেই সা-পের পক্ষের কাজটা অত্যন্ত কঠিন । কিন্তু সাপটি ল-ড়াই ছা-ড়েনি ।

সে সবকিছু জানা সত্বেও সেই মুরগির ডিমের দিকে আ-ক্র-মণ করতে যাই । আর তার ফলে ঘ-টে গে-ল এই বি-পদ । ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে সা-পটি যখন মুরগির ডিম গু-লিকে খেতে আসছে তখন মুরগিটি সা-পের মা-থায় স-জোরে আ-ঘাত ক-রে । এভাবে বেশ কিছুক্ষন ধরে চলতে থাকে তাদের ল-ড়াই । একদিকে পেটের টান অন্যদিকে নিজের সন্তানদের বাচানোর তাগিদ । তারপরে যদিও আর সাহস দেখায়নি তাদের আ-ক্র-মণ করার ।

ভিডিওতে দেখানো মুরগি সেই পারদর্শিতা এবং সাহসিকতা অনেকে প্রশংসা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে । তার পাশাপাশি কমেন্ট সেকশনে অনেকেই এই ধরনের নজি-রবি-হীন ঘটনা তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়াকে । মা সবার আগে সন্তানদেরকে রক্ষা করে এ কথা প্রমাণিত হয়েছে বহুবার এবং আগামী দিনেও প্রমাণিত হবে একথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই । ভিডিওতে ইতিমধ্যে প্রচুর ভিউজ এসেছে । তার পাশাপাশি এসেছে প্রচুর কমেন্ট ও শেয়ারের সংখ্যা ।

Back to top button