বাড়িতেই দারুন কায়দায় গ্রাম্য পদ্ধতিতে কাঁচা আম দিয়ে এইভাবে আচার তৈরি করলে তার স্বাদ হয় দারুন, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদক :- গ্রীষ্মকালে যে খাবারটি ভাত বা রুটির সাথে পাওয়া যায় সেটি হল আমের আচার । আমাদের বাঙালিরা আমের আচার খেতে যথেষ্ট পরিমাণে বেশি ভালোবাসি । কারণ আমি এই আমার আচারে যেমন যেমন টক-ঝাল-মিষ্টি একইরকমভাবে থেকে থাকে ঠিক তেমনি যে এটা আমাদের সংস্কৃতির অন্যতম একটি অংশ । এমনিতেই কাঁচা আম স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী একটি উপাদান । কারণ রো-দ গ-রমে আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের রো-গ প্র-তি-রোধ ক্ষ-মতা ক-মে যা-য় ।

সে গুলোকে ভিতর থেকে সতেজ রাখার জন্য এটি অত্যন্ত জরুরী । কিন্তু অনেকেই জানেন না যে কিভাবে রোদে শুকানো ছাড়াই বাড়িতে আমের আচার তৈরি করা যায় । তাই আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানাচ্ছি কিভাবে বাড়িতে বসে তৈরি করতে পারবেন আমের আচার । সুস্বাদু এই আমের আচার তৈরি করার জন্য প্রথমে আপনাকে কড়াই এ জিরা মৌরি তেজপাতা দারচিনি ধনে এবং শুকনো লঙ্কার ভেজে নিতে হবে এবং সেগুলি গুঁড়ো করে অন্য একটি পাত্রে রাখতে হবে । অর্থাৎ খুব পরিষ্কার ভাষায় গুঁড়ো মশলা করে রাখতে হবে ।

এরপর আপনাকে বেশ কয়েকটি তাজা কাঁচা আম নিতে হবে এবং সে-গু-লিকে কে-টে ভাল করে ধুয়ে রাখতে হবে । এরপর একটি কড়াই এর মধ্যে সামান্য পরিমান জল দিতে হবে । তার মধ্যে দিতে হবে আগে থেকে কে-টে রাখা আমের টুকরোগুলোকে এবং তারপর যোগ করতে হবে সামান্য পরিমাণ লঙ্কাগুঁড়ো এবং সামান্য পরিমাণ নুন । এমতাবস্থায় আম-গু-লি জলের মধ্যে সেদ্ধ করতে হবে কিছুক্ষণের জন্য । এরপর একটি পাত্রে পুনরায় নিতে হবে কিছুটা পরিমাণ সরষের তেল এবং তার মধ্যে দিতে হবে এক চামচ সরষে বাটা এবং এক চামচ রসুন বা-টা ।

এমতাবস্থায় তার মধ্যে যোগ করে দিতে হবে আখের গুড় অর্থাৎ মিষ্টতা আমার জন্য এখানে চিনি নয় বরং আখের গুড় ব্যবহার করতে হবে । তাহলে এর রং এবং স্বাদ অত্যন্ত ভালো হয় । এরপর তার মধ্যে যোগ করে দিতে হবে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা আমের অংশ-গু-লিকে । তারপর পুনরায় ভালো করে নেড়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে আম ও অন্যান্য মিশ্রণ গু-লিকে । এরপর যখন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয়ে আসবে তখন তার উপর ছ-ড়িয়ে দিতে হবে আগে থেকে গুঁড়ো করে রাখা গরম মসলা । ঠিক এভাবে আপনি বাড়িতেই তৈরি করে নিতে পারবেন সুস্বাদু আমের আচার ।

Back to top button