পরনে নেই ব্লাউজ! গায়ে শুধু শাড়ি জড়িয়েই ‘ডোলা রে ডোলা’ গানে উদ্দাম নেচে নৌকা কাঁপালেন যুবতী, নিমেষেই ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কিন্তু আমরা অনেক জিনিস সম্বন্ধে জানতে এবং বুঝতে পারি। বর্তমানে গণমাধ্যমের থেকেও বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। ফেসবুক এবং হোয়াটসঅ্যাপের মতো প্ল্যাটফর্ম গুলি দ্রুতগতিতে মানুষের মধ্যে যে কোন জিনিস ছড়িয়ে দিচ্ছে। যদিও পূর্ববর্তী সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার এতটা পরিমাণে জনপ্রিয় ছিল না।

তবে দিন প্রতিদিন যেভাবে এটি বেড়ে চলেছে তাতে কোন সন্দেহ নেই অদূর ভবিষ্যতে এটি টেলিভিশন এবং সংবাদপত্রের জনপ্রিয়তা কে সম্পূর্ণরূপে অতিক্রম করে যাবে। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার উপকারিতা থাকার পাশাপাশি কিন্তু বহুল পরিমাণে অপকারিতাও রয়েছে যা এটিকে মানুষের চোখে খারাপ করে তুলছে। এই নেট মাধ্যমে শেয়ার পাওয়া বিভিন্ন ভিডিও বা ফটো দেখে একদিকে যেমন আমরা আনন্দ পাই ঠিক তেমনভাবে কিন্তু আমাদের মন অনেক সময় ভারাক্রান্ত হয়ে ওঠে।

তবে শুধুমাত্র অবসর সময় কাটানো নয় অনেক সময় এই সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে কিন্তু আমরা আরো নানান ধরনের কাজ করে থাকি।। অনেক মানুষ এই সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে ব্যবসা করে বহুল পরিমাণে অর্থ উপার্জন করছেন। আবার কেউবা হয়তো এই সোশ্যাল মিডিয়ার সামনেই নিজস্ব প্রতিভা তুলে ধরে জনপ্রিয়তা পাচ্ছেন। একবার যদি সেই প্রতিভা কারো নজরে আসে তাহলে তা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে দেশের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে পড়ে।

নেট মাধ্যম কিন্তু এই কারণগুলোর জন্যই মানুষের জীবনের একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় অংশে রূপান্তরিত হয়েছে।বিশেষ করে করোনা পরিস্থিতিতে গৃহবন্দি থাকাকালীন মানুষ নিজের প্রতিভাকে আরো বেশি করে ফুটিয়ে তুলতে পেরেছে এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই। তেমন ভাবেই ভাইরাল হয়েছেন শ্রীতমা বৈদ্য।

আপনারা যারা নিয়মিত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন তারা কিন্তু কমবেশি শ্রীতমাকে হয়তো দেখেছেন বা তার নাচ দেখেছেন। সম্প্রতি তার instagram প্রোফাইল থেকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠেছিল যেখানে দেখা যাচ্ছিল জনপ্রিয় দেবদাস চলচ্চিত্রের ডোলা রে ডোলাতে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করছেন তিনি।

নাচের সময় তার পরনে রয়েছে লাল পাড় সাদা রঙের শাড়ি সঙ্গে হালকা মেকআপ, খোলা চুল, পায়ে নুপুর এবং হাতে শাখা পলা আর সিঁথিতে সিঁদুর। ভিডিওতে তার নাচ দেখেই বোঝা যায় দীর্ঘ সময় ধরে এর জন্য তালিম নিয়েছেন শ্রীতমা। তার নাচের প্রতিটি স্টেপের প্রশংসা করেছেন দর্শকেরা। অনেকেই কিন্তু ভিডিওর কমেন্ট বক্সে তাকে প্রশ্ন করেছেন এত সুন্দর নাচ তিনি কোথা থেকে শিখেছেন তা নিয়ে।

৮ থেকে ৮০ সকল বয়সের মানুষই কিন্তু শ্রীতমার নাচে মুগ্ধ। এখনো পর্যন্ত প্রায় ৭০ হাজার দর্শকেরা শ্রীতমার শেয়ার করা এই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন এবং তাতে প্রচুর পরিমাণে লাইক আর কমেন্ট করেছেন। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই এই যুবতীর instagram প্রোফাইলে গিয়ে তার শেয়ার করা অসাধারণ ভিডিওটি আপনারা দেখে নিতে ভুলবেন না। তার নাচের এই বিশেষ পারফরম্যান্স আপনাদের কেমন লাগলো অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। এই ধরনের আরো নানান খবরা-খবর সম্পর্কে জানতে নজর রাখতে থাকুন আমাদের পোর্টালের পাতায়।

Leave a Comment