‘মুরগী ও বড় বাঁদরের মধ্যে তু-মুল ল-ড়াই, বাঁদরের এক কা-ম’ড়েই কা-ত হলো মুরগী, তু-মু’ল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- জীবন মানেই সং-গ্রাম । একথা আমরা প্রত্যেকে জানি । কিন্তু কখনো কখনো এই জীবনের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য ল-ড়াইয়ে লি-প্ত না হবার ঘটনা সামনের সারিতে উঠে এসেছে । জীবন মানে যেখানে সংগ্রাম সেখানে লড়াই অনিবার্য । ল-ড়াই করি নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে হবে । কিন্তু কখনো কখনো ল-ড়াই না করে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ এর হাত বাড়িয়ে দেওয়া যেতেই পারে। এবং এই ঘটনা শুধুমাত্র মনুষ্য প্রজাতির মধ্যে দেখা যায় এমন কিন্তু নয় । তার পাশাপাশি প-শু-পাখি জ-ন্তু-জা-নোয়ার মধ্যে একই ধরনের অনুভূতি কাজ করে ।সম্প্রতি সেরকম একটি ভিডিও প্রকাশিত হলো ।

আমরা এর আগে বিভিন্ন ভিডিওর মাধ্যমে দেখে থাকবো যে হনুমানের বাচ্চাগু-লি বাড়ির যাবতীয় কাজকর্ম করে দেয় । মূলত থাইল্যান্ড বাজার সংলগ্ন অঞ্চলে এই ধরনের হনুমান এর ব্যবহার দেখা যায় । বাড়ির যাবতীয় কাজ কর্ম থেকে শুরু করে বাজারে সবজি বিক্রি করা সমস্ত কাজ করে সেখানে উপস্থিত থাকা হনুমান । আমরা যেমন ভারতীয় বাজারে কুকুরদের কি বাড়িতে পুষে রাখি ঠিক তেমনই হনুমানকে পুষে রাখে তাদের বাড়িতে ।

সবজি বিক্রি করে দেওয়া হোক বা বাড়িতে সবজি কে-টে দেওয়া হোক বা কাপড় জামা পরিষ্কার করে দাও এরকম অনেক ধরনের ঘরোয়া কাজ করতে দেখা যায় মাঝেমধ্যে হনুমানকে । কিন্তু সম্প্রতি যে ভিডিওটি দেখা গেল সেটি একটি বন্ধুত্বপূর্ণ ভিডিও । কারণ এখানে কোন ল-ড়াই নেই নেই কোন হিং-সা বা আ-ঘাত ক-রার ঘটনা । শুধু আছে ভালোবাসা আর বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ। থাইল্যান্ডের একটি অঞ্চলে ঘটনা এটি । এবং সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে কিছু মুরগির বাচ্চা তাদের মায়ের সাথে খেলা করছিল ।

কিন্তু হঠাৎ করেই তাদের মধ্যে একটি মুরগির বাচ্চা দলছুট হয়ে যায় । ও একলা পড়ে যায় রাস্তার মধ্যে । সেই সময় সেখানে উপস্থিত হয় একটি হনুমানের বাচ্চা ।যার ফলে একটা আ-তঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয় । সবাই হয়তো এমনটা মনে করেছিল সেই হনুমানের বাচ্চাটি মুরগির বাচ্চাটিকে খেয়ে নেবে বা আ-ঘাত করবে । কিন্তু সম্পূর্ণ উল্টো চিত্র দেখা গেল এই ভিডিওতে । সেখানে দেখা যাচ্ছে হনুমানের বাচ্চা টি মুরগীর বাচ্চাটিকে অতি যত্ন সহকারে তুলে নিয়ে মুরগীদের দলের মধ্যে ফিরিয়ে দিয়ে এলো । অ-বাক করার মতন কা-ণ্ডটি ভাইরাল হয়েছে দুনিয়াতে ।

Back to top button