হিজড়াদের এই ৩টি জিনিসে ভুলেও হা’ত দেবেন না, নিঃস হয়ে যাবেন, সাবধান!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এই সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষরা একসাথে মিলেমিশে বসবাস করে । তবুও সমাজে এমন কিছু ধরনের মানুষ থাকে যারা সমাজ থেকে অনেকটাই দূরে । এর জন্য অবশ্য দায়ী আমরা । কারণ তারা যেহেতু অন্যান্য বাকি মানুষের মতন সাধারন নয় তাই তাদেরকে সমাজ থেকে অনেক দূরে ঠেলে দিয়েছি আমরা । এবং দূ-রে ঠে-লে দেওয়াতে তাদের জীবনযাপন আমাদের থেকে অনেক খানি আলাদা বলা যেতে পারে । স্রো-তের বিপরীত দিকে অনবরত তারা ল-ড়াই জা-রি রেখে টিকিয়ে রেখেছে তাদের অস্তিত্ব।

আমি এই মুহূর্তে হিজড়া দের কথা বলতে এসেছি । কারণ তারা সমাজ থেকে আজ অনেকটাই দূরে । যদিও এখন সভ্যতার অগ্রগতির হাত ধরে তারা সমাজের আলোর দিকে এগিয়ে আসছে এ কথা ঠিক । কিন্তু এখনো বিপুল পরিমাণে রয়েছে যারা আজও সমাজের অ-ন্ধ-কারে নি-মজ্জিত । এবং যেহেতু আমরা তাদেরকে সমাজ থেকে বাইরে ঠেলে দিয়েছি তাই তাদের জীবনযাত্রা অনেকখানি আলাদা আমাদের তুলনায় । রীতিমত সারাদিন খেটেখুটে রাস্তায় ঘুরে বেরিয়ে ট্রেনে বাসে চেপে তাদের জা-রি রাখ-তে হয় ল-ড়াই। ঠিক তেমনই একটি তথ্য সামনে উঠে এসেছে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে সেখানে জানানো হচ্ছে যে এই বিশেষ তিনটি জিনিস কখনই হিজরেদের কে দান করতে নেই । তাতে সংসার অ-ম-ঙ্গল হ-য় । বলুনতো সেই জিনিস গুলো কি কি? জিনিস গু-লি হল

স্টিলের বাসন :- শাস্ত্রীর মতে এমন বলা হয়ে থাকে যে যদি কোন ব্যক্তি তৃতীয় লি-ঙ্গের কোন ব্যক্তিকে তার বাড়ির স্টিলের বাসন পত্র ইত্যাদি দান করে থাকেন তাহলে সং-সারের অ-শান্তি ব-জায় থা-কে এবং সময়ের সাথে সাথে বাড়তে থাকে । আপনি চাইলে শাকসবজি চাল খাবার দিতে পারেন কিন্তু কখনো স্টিলের বাসন পত্র দেবেন না ।

রুপোর জিনিস :- পুরান মতে এমনটা বলা হয়ে থাকে যে তৃতীয় লি-ঙ্গের কাউকেই রুপোর কোন জিনিস দেবেন না । অনেকেই আ-বেগী হয়ে বা উদারতা ভাগ সম্পন্ন মানসিকতার জন্য বিভিন্ন রুপোর জিনিসপত্র দিয়ে থাকেন তাদেরকে । কিন্তু রুপোর জিনিস কখনো আপনি দেবেন না । এতে সংসার আর্থিক ক্ষ-তি হ-য় ।

এবং সবশেষে যে জিনিসটি দিতে বারণ করছে সেটি হল তেল । যেকোনো ধরনের তেল হতে পারে । সরষের তেল সাদা তেল যেকোনো ধরনের তেল কখনোই আপনি কোন হিজড়াকে দেবেন না । এতে আপনার দৈনন্দিন জীবনে প্র-চন্ড পরিমাণের স-মস্যা আসতে পারে । তার পাশাপাশি স-মস্যা আসবে আপনার পরিবারের উপরে ।কাজেই এই সমস্ত বিষয়গু-লি মাথায় রেখে তবে কাউকে কিছু দান করুন ।

Back to top button