শুধুমাত্র ডিম দিয়েই খুব সহজ ঘরোয়া উপায়ে বানিয়ে ফেলুন মুসুর ডালের এই সুস্বাদু চচ্চড়ি, রুটি বা পরোটার সাথে লাগবে অসাধারণ!

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুসুর ডাল দিয়ে কিন্তু আমরা প্রায় সময় নানান ধরনের রান্না করে থাকি। এই ডাল দিয়ে বিভিন্ন পদ তৈরি করা যায় যা আমাদের প্রত্যেকেরই অত্যন্ত পছন্দের খাবারের তালিকার মধ্যে হয়তো পড়ে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি ডিম দিয়ে তৈরি দারুন টেস্টি মুসুর ডালের চচ্চড়ি রেসিপি।

এই রেসিপি কিন্তু আপনারা ভাত থেকে শুরু করে রুটি পরোটা সবকিছুর সাথেই খেতে পারবেন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক এবং জেনে নেওয়া যাক কিভাবে এই রান্নাটি আপনারা করতে পারবেন।

ডিম দিয়ে তৈরি মুসুর ডালের চচ্চড়ি রেসিপি:

১) এই রান্নাটি করার জন্য আপনাদের একটি বড় পাত্রের মধ্যে এক কাপ পরিমাণ মুসুর ডাল নিয়ে নিতে হবে। তারপর বেশ কয়েকবার জল পাল্টে আপনাকে ডাল ধুয়ে নিতে হবে। এবার ডালের মধ্যে আপনাকে কিছুটা পরিমাণ জল দিয়ে অন্ততপক্ষে আধ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। এভাবে ভিজিয়ে রাখলে কিন্তু রান্না করতে আপনাদের খুব একটা বেশি সময় লাগবে না। এবার আপনাদের একটি আলাদা পাত্রে মাঝারি সাইজের দুটি পেঁয়াজ, একটি টমেটো, ছয় থেকে সাতটি রসুনের কোয়া, এক থেকে দুই ইঞ্চি পরিমাণ আদা এবং কয়েকটি কাঁচা লঙ্কা নিয়ে নিতে হবে।

২) দ্বিতীয় ধাপে ভালো করে এই পেঁয়াজ গুলিকে আপনারা স্লাইস করে কেটে নিন। টমেটো ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন আর পাশাপাশি কাঁচালঙ্কা গুলিকে চিড়ে নিন। আদা আর রসুন কিন্তু মিহি করে গ্রেট করতে হবে। এবার আপনাদের একটি বাটির মধ্যে নিয়ে নিতে হবে তিনটে ডিম। ডিমের পরিমাণ কিন্তু আপনারা নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী কমবেশি করতে পারেন।

এবার এই ডিমের মধ্যে আপনাকে দিয়ে দিতে হবে কিছুটা পরিমাণ লবণ আর গোলমরিচের গুঁড়ো। গোলমরিচের গুঁড়ো ব্যবহার করলে ডিমের যে গন্ধ থাকে সেটা চলে যাবে। যদি আপনাদের বাড়িতে গোল মরিচের গুঁড়ো না থাকে সেক্ষেত্রে কিছুটা পরিমাণে লাল লঙ্কার গুঁড়ো এতে দিয়ে দিতে পারেন। এরপর অন্যদিকে আপনারা যে ডাল জলে ভিজিয়ে রেখেছিলেন সেটাকে ঝরিয়ে নিতে হবে।

৩) তৃতীয় ধাপের শুরুতেই কড়াইতে পর্যাপ্ত পরিমাণে তেল দিয়ে ভালো করে গরম করে নিন। তারপর ডিমের মিশ্রণটিকে এটাতে দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণ পরে ডিম হালকা ভাজা ভাজা হয়ে গেলে আপনাদের হাতা দিয়ে নাড়াচাড়া করে এটাকে কুচি কুচি করে নিতে হবে। ডিমের কুচি তৈরি হয়ে গেলে সেটাকে আলাদা একটি পাত্রে তুলে ওই কড়াইতেই আরো একটু তেল দিয়ে দিতে হবে।

তেল গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে দিয়ে দিন হাফ চামচ গোটা জিরে, দুটো শুকনো লাল লঙ্কা। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে কুচিয়ে নেওয়া পেঁয়াজ যোগ করে দিন। মিডিয়াম ফ্লেমে পেঁয়াজ সামান্য নরম হয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর এতে যোগ করে দিতে হবে গ্রেট করে রাখা রসুন আর আদা। মিনিট দুয়েক সময় নাড়াচাড়া করুন যাতে আদা আর রসুনের কাঁচা গন্ধ চলে যায়।

যে টমেটো টি আপনারা কেটে রেখেছিলেন এবার সেটা কেউ এর মধ্যে দিয়ে দিন।। আবারো সামান্য নাড়াচাড়া করে কিছুটা পরিমাণ হলুদের গুঁড়ো, হাফ চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো, হাফ চামচ জিরা গুঁড়ো, হাফ চামচ ধনে গুঁড়ো যোগ করে দিন। মসলার পরিমাণ আপনারা নিজেদের পরিমাণ অনুযায়ী কমিয়ে বাড়িয়ে নিতে পারেন।

৪) সর্বশেষ ধাপে এই উপকরণের মধ্যে আপনাদের ডাল দিয়ে দিতে হবে। মসলার সাথে ডাল ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে আপনাদের কিছু সময়।। তারপরে এর মধ্যে পরিমাণ মতন জল দিয়ে কিছুক্ষণ ডাল সেদ্ধ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ডাল সেদ্ধ হয়ে গেলে এতে আরো কিছুটা পরিমাণ লবণ আর চিনি আপনাদের স্বাদ ব্যালেন্স করার জন্য যোগ করে দিতে হবে।

ভালো করে লবণ আর চিনি মিশিয়ে নিয়ে এর মধ্যে দিয়ে দিন প্রথমেই তৈরি করে রাখা সেই ডিমের ভুজিয়া। তিন থেকে চার মিনিট ভালো করে এই ডিমের ভুজিয়া দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে সামান্য পরিমাণে বাটার ছড়িয়ে নামিয়ে নিতে পারেন ডিম দিয়ে তৈরি মুসুর ডালের এই চচ্চড়ি। রুটি থেকে শুরু করে ভাত সবকিছুর সাথেই কিন্তু আপনারা এই রেসিপি পরিবেশন করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button