বিভিন্ন কারখানা থেকে নির্গত কৃষি বর্জ্য থেকে কাপড় তৈরি করে প্রতি মাসে আয় করুন লাখ টাকা! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমান সময়ে যুব সমাজের জন্য সবথেকে প্রয়োজনীয় চাকরি। তবে সরকারি চাকরি এখন অনেকটাই ভাগ্যের উপর নির্ভরশীল। খুব স্বাভাবিকভাবে মানুষকে সাফল্য অর্জন করার জন্য অন্যান্য পথ বেছে নিতে হচ্ছে।আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমন একটি অনুপ্রেরণার গল্প আলোচনা করতে চলেছি যাতে আপনারা খুব সহজেই নিজের চেষ্টার উপর বিশ্বাস রাখতে পারবেন।জানরে এমন একজনের কথা বলবো জেনে কৃষি বর্জ্য পদার্থ থেকে পরিবেশবান্ধব কাপড় তৈরীর কাজ শুরু করেছিলেন। বর্তমানে তারা সফল ব্যবসায়ী তে পরিণত হয়ে গিয়েছেন।

এই ব্যক্তি মুম্বাইয়ের বাসিন্দা, নাম কৌশিক বর্ধন। তিনি এবং তার মা ভুবনা শ্রীনিবাস এর প্রচেষ্টা আজ সফল। প্রসঙ্গত ভারতে বেশিরভাগ মানুষ কৃষি কাজের সঙ্গে যুক্ত।যার ফলস্বরূপ প্রতিবছর দেশে প্রচুর পরিমাণে কৃষি বর্জ্য উৎপন্ন হয়ে থাকে। এই পদার্থ সাধারণত পুড়িয়ে দেওয়া হয় যার কারণে দূষণ বৃদ্ধি পায়।

এ ধরনের সমস্যা থেকে বেরিয়ে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা এই মা এবং ছেলে পরিবেশবান্ধব কাপড় তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।মাত্র 25 বছর বয়সে ডিজাইনিং এর স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পর ফ্যাশন টেক্সটাইল শিল্পে অন্য ধারণা তৈরি করতে চেয়েছিলেন তিনি। আর সেই থেকেই তার এই ব্যবসা এর উৎপত্তি।ব্যবসায় সাফল্য লাভ করার পর প্রতি বছর দু লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করতে সক্ষম হয়েছিলেন তারা। তাই যদি আপনিও কোন ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই নিজের বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে এগিয়ে যেতে পারেন।

এই অনুপ্রেরণার গল্প নিঃসন্দেহে আপনাকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে। ছোটখাটো ব্যবসা হিসেবে আপনি পাইকারি কোন জিনিস বিক্রয় থেকে শুরু করে মানুষের চাহিদা অনুযায়ী কোন ব্যবসা শুরু করতে পারেন।এর জন্য আপনার খুব বেশি জায়গা বা বেশি মূলধনের প্রয়োজন হবে না।তবে অবশ্যই বিচার বিশ্লেষণ করে নিজের ব্যবসায়িক ক্ষেত্র বেছে নেবেন।

Back to top button