ঘরোয়া সহজ পদ্ধতিতে বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন এলাইচি ও চকলেট এই দুই ফ্লেভারের হরলিক্স

নিজস্ব প্রতিবেদন :একটু হরলিক্স দেবে চেটে চেটে খাবো”? মনে আছে ‘ছোটবউ’ সিনেমার সেই বিখ্যাত ডায়লগ! আমরা সবাই ছোটবেলায় কমবেশি এই দাবী মায়ের কাছে করেছি। আজকাল নানা রকমের হেলদি প্রোটিন ড্রিঙ্ক বাচ্চাদের জন্য মার্কেটে পেয়ে যাবেন। কিন্তু হরলিক্সের সেই স্বাদ আজও ভোলা যায় না। অবসর সময়ে আপনার ছোট্ট সোনার জন্য ঘরে বসে বানিয়ে ফেলতে পারেন হরলিক্স।

হ্যাঁ দোকান থেকে কিনে আনা এর চেয়ে বেশি সহজ কাজ। কিন্তু নতুন কিছু বানানোর ইচ্ছে হলে একবার এটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। এলাইচি আর চকলেট এই দুই ফ্লেভারের হরলিক্স বানানোর পদ্ধতি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

হরলিক্স ঘরে বানাতে কি কি লাগবেঃ
1.গম এক বাটি
2.আলমন্ড ১০-১২ টা
3.চিনেবাদাম ২০-২৫ টা
4.মিল্ক পাউডার বড় ৪ চা চামচ
5.চিনি ৫-৬ চা চামচ
6.এলাচ গুঁড়ো এক চামচ
7.কোকো পাউডার ৩ চা চামচ
হরলিক্স যদি নর্মাল কোন ফ্লেভার ছাড়া বানাতে চান তাহলে উপরের এক থেকে পাঁচ অব্দি উপকরণ দিয়েই বানানো যাবে। এলাচ গুঁড়ো আর কোকো পাউডার ফ্লেভারের জন্য।

হরলিক্স ঘরে কিভাবে বানাবেনঃ এটা ঘরে বানানো খুব সহজ। শুধু গম অঙ্কুরিত করতে তিনদিন লাগবে। অঙ্কুরিত হয়ে গেলে ২০ মিনিটের মধ্যেই হরলিক্স তৈরি হয়ে যাবে।

১. গম অঙ্কুরিত করার উপায়ঃ এক বাটি গম ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। তারপর দু থেকে তিনবার ভালো করে ধুয়ে জলে ভিজিয়ে রাখুন। ২৪ ঘণ্টা মত ভিজিয়ে রাখুন। ২৪ ঘণ্টা পর দেখবেন গম নরম হয়ে গিয়েছে। আঙুল দিয়ে টিপলেই ভেঙে যাচ্ছে। এবার জল ঝড়িয়ে নিয়ে একটি পাত্রে গম ঢেকে রাখুন ২দিন। দুদিন পর দেখবেন গম থেকে শিকড় বেরিয়ে গিয়েছে। একটি শুকনো পরিষ্কার কাপড়ে অঙ্কুরিত গম রেখে দিন ফ্যানের তলায়। কোন রকমের ভাজা ভাব বা ময়েশ্চারা যেন এতে না থাকে।

২. গম রোস্ট করার পালাঃ অঙ্কুরিত শুকনো গম এবার কম আঁচে কড়াইয়ে পাঁচ মিনিট মত রোস্ট করুন। গম থেকে সুন্দর একটা গন্ধ বেরতে শুরু করলে গ্যাস অফ করে দিন। একটি থালায় ঢেলে আগে এটাকে ঠাণ্ডা করুন। তারপর মিক্সিতে ভালো করে পিষে নিন। একদম স্মুদ বা মিহি পেস্ট বানাবেন। একটা চালুনি দিয়ে চেলে নেবেন দরকার হলে। তাতে মিহি পাউডার বাদে বাকি অংশ বেরিয়ে আসবে। আবার পিষে নেবেন।

৩. চিনেবাদাম ও আলমন্ড গুঁড়ো করুনঃ প্রথমে শুকনো খোলায় চিনেবাদাম রোস্ট করে নিন। তারপর তা ঠাণ্ডা করে খোসা ছাড়িয়ে রাখুন। আলমন্ড একই ভাবে রোস্ট করে নিয়ে ঠাণ্ডা করুন। এবার একটি জিপ লক প্লাসিকের ব্যাগে ভরে ভারি বস্তু দিয়ে চিনেবাদাম ও আলমন্ড ভেঙে নিন। এতে এগুলো গুঁড়ো করার সময় তেল ছাড়বে না। হালকা ভেঙে নেওয়ার পর মিক্সিতে ঢালুন। তার সাথে মেশান ৫ থেকে ৬ চামচ মত চিনি। ভালো করে মিহি গুঁড়ো করুন।

৪. হরলিক্স বানানোর পালাঃ শেষ ধাপে এসে হাজির। পিষে রাখা গমের মধ্যে বাদাম ও চিনির গুঁড়ো মেশান। তাতে দিন মিল্ক পাউডার চার চা চামচ। ভালো করে সব মেশান। সব মেশানো হয়ে গেলে আরেকবার মিক্সিতে দিয়ে গুঁড়ো করুন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল হরলিক্স। নর্মাল কোন ফ্লেভার ছাড়া হরলিক্স খেতে যা টেস্ট হয় এটা সেরকম।

5.এলাইচি ফ্লেভার হরলিক্সঃ সবকটা স্টেপ হয়ে গেলে শেষে যখন গমের গুঁড়োর সাথে বাকি উপাদান মেশাবেন তখন তাতে এক চামচ এলাচ গুঁড়ো মিশিয়ে দেবেন। এতে করে আপনারা হরলিক্সের এলাইচি ফ্লেভার পেয়ে যাবেন। দেখলেন কত সহজ!

 

6.চকলেট ফ্লেভার হরলিক্সঃ একই ভাবে এলাচের বদলে কোকো পাউডার ৩ চামচ মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে চকলেট ফ্লেভার হরলিক্স। বাচ্চারা এটা খেতে খুবই পছন্দ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button