উচ্চতা কম? শাড়ি পরার সময় এই ১০টি টিপস মেনে চললে দেখাবেন লম্বা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- প্রত্যেক নারীকেই কিন্তু ঐতিহ্যবাহী ভারতীয় শাড়িতে দেখতে খুবই সুন্দর লাগে। শাড়ি একটি এমন পোশাক, যা কমবয়সী থেকে শুরু করে মহিলা-সকলকেই মানায়। অনেকেই মনে করেন, যাদের উচ্চতা কম তাদের শাড়িতে মোটেও মানায় না। কিন্তু এই বিষয়টি কিন্তু মোটেও ঠিক নয়। কয়েকটি বিষয়ে খেয়াল রাখলেই কিন্তু বেঁটে হয়েও শাড়িতে করতে পারেন বাজিমাত। এর ফলে বেঁটে মহিলাদেরও লম্বা দেখাতে পারে। আপনার উচ্চতা যদি খুবই ছোট হয়, তাহলে শাড়ি পরার সময় দশটি টিপস মাথায় রাখুন। এর পাশাপাশি আমরা আপনাদের এমন কিছু অভিনেত্রীদের কথাও বলছি, যাঁরা ফ্যাশন ডিজাইনারের পরামর্শ নিয়ে নিজেদের উচ্চতা দিয়ে মানুষকে ইমপ্রেজ করেছেন।

১) বড় প্রিন্ট বা ভারি বর্ডারওয়ালা শাড়ি পরবেন না

আপনার উচ্চতা যদি কম হয় এবং শাড়ি পরতে পছন্দ করেন তাহলে বড় বড় প্রিন্টের বা ভারি পারওয়ালা শাড়ি একদম পরবেন না। ছোট বা মাঝারি প্রিন্টের শাড়ি আপনার জন্য উপযুক্ত। ছোট্ট প্রিন্চের শাড়িতে কিন্তু আপনামকে লম্বা দেখাবে। পাশাপাশি কোনও প্লেন শাড়ি, যাতে গভীর বর্ডার রয়েছে, তেমন শাড়িতেও আপনাকে লম্বা এবং সুন্দর লাগবে।

২) হাল্কা কাপর বাছুন

কড়া বা শক্ত কাপড় যেমন সুতির পরিবর্তে এমন ফেব্রিক বাছুন যা আপনি সহজেই বাঁধতে পারেন। এই যেমন ধরুন, জর্জেট, ক্রেপ, সাটিন বা শিফনের শাড়ি পরুন, এতে আপনাকে যেমন সুন্দর লাগবে তেমনই লম্বাও লাগবে।

৩) লম্বা (উলম্ব) স্ট্রাইপের শাড়ি পরুন

উলম্ব স্ট্রাইপের শাড়ি পরলে কিন্তু আপনাকে অনেকটাই লম্বা দেখাবে। আড়াআড়ি (অনুভূমিক) স্ট্রাইপের শাড়ি, কখনওই বাছবেন না। বাজারে উলম্ব স্ট্রাইপের শাড়ি খুব সহজেই উপলব্ধ। কিন্তু খেয়াল রাখবেন, স্ট্রাইপগুলি যেন খুব চওড়া না হয়।

৪) গাঢ় রঙের শাড়ি বাছুন

আপনি যদি শর্ট হাইটের হন, তাহলে তাহলে আপনার হালকা রঙের পরিবর্তে গাঢ় রঙের শাড়ি বাছা উচিত। গাঢ় রঙের শাড়ি যেকোনও ওজন এবং আকৃতির মহিলাদের মানায়, আর এতে করে লম্বা এবং রোগাও দেখায়।

৫) ব্লাউজের স্লিভ

আপনি যদি নিজেকে লম্বা দেখাতে চান, তাহলে লম্বা হাতাওয়ালা ব্লাউজ পরুন। লম্বা হাতাওয়ালা ব্লাউজ আপনাকে লম্বা দেখায় এবং দেখতে ভালোও লাগে।

৬) ব্লাউজ বাছাই

আপনার যদি উচ্চতা কম হয়, তাহলে শাড়ির মতো স্ট্রাইপ দেওয়া ব্লাউজ কখনওই পরবেন না। একটি হালকা শাড়ির সঙ্গে সর্বদা ভারি কাজের ব্লাউজ পরবেন। একইভাবে যদি ভারি কাজের শাড়ি হয়, তাহলে অবশ্যই একটা সাধারণ ব্লাউজ পরুন। স্ট্রাইপওয়ালা শাড়ি পরার আগে ব্লাউজ এবং স্ট্রাইপওয়ালা ব্লাউজ পরা আগে শাড়ি সঠিকভাবে বাছুন।

৭) শাড়ির আঁচল

আপনি যদি হাইটে ছোট হন এবং নিজেকে লম্বা দেখাতে চান, তাহলে অবশ্যই শাড়িটিকে ভালোভাবে পরতে হবে। সেইসঙ্গে শাড়ির প্লিটটিও ছোট ছোট করে করতে হবে। চওড়া প্লিট বেমানান লাগবে। আঁচলের প্লিট যদি ঠিকঠাক করতে পারেন, তাহলে কিন্তু আপনাকে লম্বা দেখাবে।

৮) নাভির নীচে শাড়ি পরুন

শাড়ি যদি নাভির নীচে পরেন তাহলে তা আপনার সৌন্দর্য কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিতে পারে। আর এইভাবে শাড়ি পরলে আপনাকে লম্বাও দেখাবে।

৯) লেহেঙ্গা স্টাইলে শাড়ি পরুন

আপনার উচ্চতা যদি খুব কম হয় এবং আপনি যদি একান্ত শাড়ি পরতে চান, তাহলে শাড়িটি লেহেঙ্গার মতো করে পরুন। এতে আপনাতে একদিকে যেমন লম্বা দেখাবে , তেমনই সুন্দরও দেখাবে। এটি আপনার জন্য সেরা সমাধান এবং এই কায়দায় শাড়ি পরাটা এখন খুবই ফ্যাশনেবল।

১০) সায়া নির্বাচন সঠিক হওয়া চাই

আপনি যদি নিজেকে লম্বা দেখাতে চান, তাহলে এইধরণের সায়া কখনওই বাছবেন না, যেগুলি অধিক প্রসারিত অর্থাৎ বেশি ঘেরযুক্ত। বরং এমন পেটিকোট বাছুন যার ঘের কম। আর পেটিকোটের দৈর্ঘ্য গোড়ালি পর্যন্ত রাখা উচিত। পাশাপাশি উচ্চতা বাড়াতে শাড়ির সঙ্গে হাই হিল জুতো পরুন।

Back to top button