প্রবল গতিতে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’! সারা বাংলা জুড়ে সতর্কতা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর!

নিজস্ব প্রতিবেদন:বিগত কয়েক দিন ধরে ক্রমাগত বৃষ্টির ফলে অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে কলকাতা সহ রাজ্যের কয়েকটি অংশে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি জায়গা থেকে জলে ডুবে থাকার ছবি সামনে এসেছে। ইন্টারনেটে ভাইরাল বিভিন্ন ভিডিও থেকে জানা যাচ্ছে কলকাতার বেশিরভাগ জায়গাতেই জমে রয়েছে জল। বাড়ি থেকে অফিস সব জায়গাতেই অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

কোমর সমান জলের মধ্যে কোনভাবেই স্বাভাবিক কাজকর্ম করা সম্ভব হচ্ছে না। টানা বৃষ্টি হবার ফলে জল নিষ্কাশন করা হলেও তাতে বিশেষ লাভ হচ্ছে না।বেশ কয়েকটি জায়গা থেকে নদী বাঁধ ভেঙে আসার খবর সামনে এসেছে।যার ফলস্বরূপ প্লাবনের পরিস্থিতি আরও কঠিন হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

এরমধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে ৮ জন ব্যক্তির বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মৃ-ত্যু-র খবর সামনে এসেছে। সামনেই বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। আর সেই উৎসবের আগে এই ধরনের বিপর্যয়ের ফলে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে সারা বাংলার মাটিতে। সম্প্রতি আবারও দুর্যোগের কথা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। জানা গিয়েছে খুব শীঘ্রই বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’।

এই ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হবার পর এগিয়ে যেতে চলেছে অন্ধপ্রদেশ এবং ওড়িশার দিকে। তবে এর কিছুটা প্রভাব পড়বে বাংলার উপরেও। রবিবার পূর্ব মেদিনীপুর সহ বাংলার বেশ কয়েকটি জায়গায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যেই মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

রবিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় প্রতিটি জেলাতেই হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।এই জেলাগুলিতে ব্যাপক বৃষ্টিপাতের সর্তকতা জারি করেছে হাওয়া অফিস। এই জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে দুই 24 পরগনা, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া প্রভৃতি। জানিয়ে রাখি আজ কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৩.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অপরদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে চলেছে ২৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Back to top button