“প-র-কী-য়া তো এখন লিগ্যাল, তো বৈশাখীকে নিয়ে অসুবিধা কী”- এবার মুখ খুললেন বৈশাখী ব্যানার্জির স্বামী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজ্যে রাজনীতি এখন চ-রম উ-ত্তপ্ত । আমরা দেখেছিলাম সিবিআই গ্রে-ফতার করেছিল নারদ কান্ডে জন্য চার হেভিওয়েট নেতা কে । মদন মিত্র ফিরাদ হাকিম সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় । তিনি বি-রোধী দলের নেতা হলেও তাকে সিবিআই আ-ক্রমণ ক-রেছেন । । যার ফলে প্রতিনিয়ত যে রাজনীতিতে বেড়ে চলেছে প্রশ্ন এবং জ-ল্পনা।

কিন্তু এরই মাঝে যে খবরটি সবথেকে বেশি খবরের শিরোনাম দখল করেছে সেটি হল শোভন-বৈশাখী এবং রত্নার ত্রিমুখী সমীকরণ । আমরা জানি যে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী ছিলেন রত্না । কিন্তু এখন তাদের মধ্যে ডি-ভোর্স হয়ে গেছে । আ-ইনগতভাবে না হলেও মা-নসিকভাবে হয়ে গেছে ।এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় এখন থাকেন তার বান্ধবীর সাথে । কিন্তু তার স্বামী কি করে তাহলে অর্থাৎ বৈশাখী স্বামী মনোজিৎ মন্ডল কি করেন ? কেন আপত্তি জানান না এবার সব প্রশ্নের উত্তর উঠে মুখ দিয়ে ।

যখন শোভন চট্টোপাধ্যায় গ্রে-ফতার হয় তখন নিজাম প্লেসে ছুটে গিয়েছিলেন রত্না চট্টোপাধ্যায় কিন্তু তারপরেই সোশ্যাল মাধ্যমে প্রশ্ন আসতে শুরু করে । তাহলে বান্ধবী চুপ থেকে গেলেন কেন ? বান্ধবীকে দেখা গেল না কেন? কিন্তু উল্টো চিত্র দেখা গেল রাত্রেবেলা। রাত হতে প্রেসিডেন্সি জেলে সামনে ভিড় করলেন বৈশাখী এবং তার অনুগামীরা । এবং কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন প্রেসিডেন্সি জেল এর গেটের বাইরে । তিনি বলতে থাকেন যে তার প্রিয় বন্ধু শোভন চট্টোপাধ্যায় অনেকগু-লি ওষুধ খান। ওষুধ না খেলে তো শরীর আরও অ-সুস্থ হ-য়ে প-ড়বে ।

দয়া করে তাকে ও-ষুধ খেতে দিন । এর পাশাপাশি আমরা দেখেছিলাম এসএসকেএম হা-সপা-তালে শোভন বাবুর পাশে পাশে বেড চেয়ে বসেছিল বৈশাখী । এবার তার স্বামী মনোজিৎ মন্ডল মুখ খুললেন । প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন তার বক্তব্য তিনি বলেন যে রত্না দিকে আমি তেমন ভাবে চিনি না ।দু একবার কথা হয়েছে । উনি মা-ন-সিকভাবে অ-সুস্থ । চি-কিৎসা দরকার তার পাশাপাশি যেহেতু ডি-ভোর্স কেসের ঝুলছে তাই মা-নসিকভাবে ভে-ঙে প-ড়েছেন ।

উনার এখন বিশ্রাম দরকার । কিন্তু বৈশাখী কে নিয়ে তিনি বলেছেন যে “বৈশাখী বন্দোপাধ্যায় বা কেও একটা ২২ বছরের সম্পর্ক ভে-ঙে দে-বেন কি করে। তিনি আরও বলেন, সম্পর্ক ভে-ঙে যা-ওয়ার আসল কারণ আমরা সবাই জানি কোর্টও জানে। তাই বৈশাখী কখনই শোভন রত্না দেবীর ডি-ভো-র্সের কারণ হতে পারে না। প-র-কী-য়া তো এখন লিগ্যাল হয়ে গেছে। এটা কোনো অ-সুবিধার নয়। করতেই পারে যে কেউ প-র-কি-য়া।” অর্থ তিনি একপ্রকার স্বীকার করছেন যে তার স্ত্রী প-র-কী-য়ায় লি-প্ত এই ঘটনা প্রকাশের পর পুনরায় শুরু হয়েছে জ-ল্পনা ।

Back to top button