বাইক আরোহীদের জন্য দারুন সুখবর! রাস্তায় বেরোলে আর দিতে হবেনা অযথা ফাইন! ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর! রইল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: অক্টোবর মাস উৎসবের মাস; আর এই উৎসব শুরু হওয়ার আগেই বাইক আরোহী দের জন্য সুখবর নিয়ে এলো রাজ্য সরকার। প্রসঙ্গত নতুন জারি করা নির্দেশিকা অনুযায়ী এবার থেকে আর রাস্তায় চলাকালীন সিভিক ভলেন্টিয়ার দের হাতে হে-নস্থা হতে হবে না বাইক আরোহীদের।প্রসঙ্গত কোন রকম সমস্যা না থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নাকা চে-কিংয়ের পা-ল্লায় পড়ে বাইক আরোহীদের নানান ধরনের অসুবিধার মুখোমুখি হতে হয়। এমনকি বেশ কয়েকবার কঠোরভাবে সিভিক ভলেন্টিয়ার দের হাতে হে-নস্তা হয়েছেন বাইক আরোহী রা।সেই স-মস্যা থেকেই সাধারণ মানুষকে মুক্তি দিতে এবার নতুন সিদ্ধান্ত জারি করল সরকার।

সম্প্রতি দিন দুয়েক আগে লালবাজার পুলিশের তরফ থেকে এক নতুন নির্দেশিকা জারি করে বলা হয়েছে এবার থেকে শুধুমাত্র সিভিক ভলেন্টিয়ার রা নাকা চে-কিং করতে পারবেন। কিন্তু বাইক আরোহীদের কোন রকম কাগজপত্র দেখতে পারবেন না। নির্দেশিকা অনুযায়ী, “যে সমস্ত পুলিশকর্মীদের নথিপত্র পরীক্ষার অনুমোদন নেই তারা সেই দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না”।

সুতরাং এবার থেকে আর রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে বাইক আরোহী দের কোন রকম চিন্তা করতে হবে না। প্রসঙ্গত এর আগে বেশ কয়েকবার চেকিং করতে গিয়ে তর্কাতর্কি, বাদানুবাদ থেকে হাতাহাতি পর্যন্ত হয়ে গিয়েছে সিভিক ভলেন্টিয়ার দের সাথে অনেকের।

কিন্তু নির্দেশিকা আরো বলছে যে,সিভিক ভলেন্টিয়াররা কাগজপত্র পরীক্ষা করতে না পারলেও সাব-ইন্সপেক্টর বা সার্জেন্ট রা খুব সহজেই তা পারবেন। সুতরাং প্রয়োজনে কাগজপত্র চেক করার জন্য সাব ইন্সপেক্টর বা সার্জেন্টের সাহায্য নিতে হবে।এই নির্দেশিকা জারি করার পরেও যদি কোন সিভিক ভলেন্টিয়ার কাগজপত্র পরীক্ষা করতে গিয়ে বাইক আরোহীদের হে-নস্থা করেন সেক্ষেত্রে প্রয়োজনে তার বি-রুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

Back to top button