দারুন কায়দায় দুর্দান্ত পদ্ধতিতে বাইক বোর্ড বানালেন যুবক, গঙ্গার উপর দিয়ে চলছে দিব্যি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে শিক্ষা গ্রহণের জন্য যাবতীয় কাজকর্ম করে থাকি । তার পাশাপাশি প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে থাকি । এবং কখনো কখনো সেই পরীক্ষা থেকে এমন কিছু ফল বের হয় যা আমাদেরকে অবাক করে তোলেব। অজানা সেই সমস্ত তথ্য গুলো যখন আমরা জানতে পারি তখন আমাদের জ্ঞানের সঞ্চার ও প্রসার অনেকখানি বেড়ে যায় । এই ঘটনা ঠিক সেরকম।

দেখুন একথা অস্বীকার করার কোন জায়গা নেই যে আমরা যত উন্নত হয়েছে ততই বেড়েছে আমাদের আশেপাশে পরিবেশে যানবাহন ও যন্ত্রপাতির সংখ্যার । উন্নত হচ্ছে প্রতিনিয়ত সেই সমস্ত জিনিসপত্রগু-লি ।যার ফলে আমাদের কাজের অনেকখানি সাহায্য হয়ে উঠছে প্রতিনিয়ত ।তার পাশাপাশি সময় বেছে যাচ্ছে সেই সমস্ত য-ন্ত্রপাতি বা যানবাহনের জন্য ।

আগেকার যুগে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেতে গেলে গরুর গাড়ি ঘোড়ার গাড়ি বা নৌপথে করে পারাপার করতে হতো। যা ছিল তন্ত সময় সাপেক্ষ । কিন্তু বর্তমানে নৌকোর প্রচলন নেই এমনটা কিন্তু নয় । তবে সেই সমস্ত নৌকাগুলো আধুনিকরণ হয়েছে । অর্থাৎ একটি নৌকা একটি নদী পারাপার করতে আগেকার দিনে যতটা সময় নিত বর্তমান প্রজন্মের নৌকাগুলো তার থেকে অনেক কম সময় নেই । কারণ সেই সমস্ত নৌকাগুলোতে লাগানো থাকে আধুনিক য-ন্ত্রপাতি বা মোটর ।

কিন্তু এভাবে যে একটি ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে নেওয়া যেতে পারে স্পিডবোট তা কে জানতো । তবে এই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখালেন গ্রামের এই দুই ব্যক্তি । দুই দিকে দুইটি অ্যালমনিয়ামের খোল বায়ু পূর্ণ করে রেখে এবং তার মাঝখানে একটি চাকা বিহীন মোটর সাইকেল লাগিয়ে তার মধ্যে মোটোর যুক্ত করে অভিনব পদ্ধতিতে এভাবে যে স্পিডবোট বানিয়ে নেওয়া যেতে পারে তা প্রথম দেখালেন গ্রামের এই দুই ব্যক্তি ।

ভিডিওটি দেখলে আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন যে অভিনব কায়দায় তারা এই স্পিডবোট বানিয়েছে । শুধুমাত্র বানিয়ে দেখিয়েছে তেমন কিন্তু নয় ।তার পাশাপাশি স্পিডবোটের মাধ্যমে তার নদীর এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত গিয়েছে । তার চিত্র আপনি দেখতে পাবেন । সেই ভিডিওতে অভিনব পদ্ধতিতে স্পিড বোর্ড এর কার্যকারিতা এবং পদ্ধতি দেখে সকলে অ-বাক এবং এই ঘটনাটি ভাইরাল হয়েছে সাইবার দুনিয়াতে ব্যা-পক পরিমাণে ।

Back to top button