এই পদ্ধতিতে প্রতিদিন জিরা খেলে মৃ’ত্যুর আগে পর্যন্ত কোনদিন ডা’য়াবে’টিসের সমস্যা বা হার্ট ব্ল’কেজ হবে না! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিনিয়ত মানুষ নিত্যনতুন রো-গের স-ম্মুখীন হচ্ছে যার ফলে একাধিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে আমাদের এই জীবনে । বর্তমানের এই মহামারী সময় সব থেকে যে বিষয়টি মানুষ হচ্ছে সেটি হল শ্বা-সক-ষ্টে । শ্বা-সক-ষ্ট কেন হয় তা আমরা প্রত্যেকে জানি । যদি কোনো কারণে ফুসফুসে কোনো রকম কোনো সং-ক্রমণ থেকে থাকে সেখান থেকে শ্বাসক-ষ্ট হয় । শ্বাস পরিচালনা করে গোটা দেহের মধ্যে এই ফুসফুস ।

ফুসফুস কে সতেজ রাখা আমাদের কর্তব্য । কিন্তু তবুও সেই সমস্ত বিষয়গুলি কে উপেক্ষা করে আমরা প্রতিনিয়ত এমন কিছু ধরনের কাজকর্ম সাথে যুক্ত হয়ে পড়ে যা আমাদের ফুসফুসকে প্রতিনিয়ত আরো ভ-য়ঙ্কর রো-গের দিকে ঠেলে দেয় । ফুসফুসে যদি কোনো কারণে সং-ক্রমণ হয় বা পূর্বে যদি কোনো সংক্রমণ পুনরায় মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে তাহলে কিন্তু আপনার শ্বা-সক-ষ্ট দেখা দিতে পারেন । শ্বাসক-ষ্ট যে কতটা ভ-য়ঙ্ক-র সেটা তারাই বুঝে যারা একবার হয়েছে ।

এই ম-হামারী সময় অধিকাংশ মানুষের একবার না একবার শ্বাস কষ্ট হয়েছে । কিন্তু আপনি কি জানেন যে মাত্র ১২ ঘন্টার মধ্যে আপনি আপনার দূষিত ফুসফুস পরিষ্কার করে নিতে পারবেন ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহার করে আপনি হয়তো জানতে উদগ্রীব যে এই পদ্ধতিটি কি জানাবো আপনাদেরকে বিস্তারিত প্রতিবেদন এর মাধ্যমে । রান্নার কাজে শুধুমাত্র জিরে ব্যবহার করা হয় তেমন কিন্তু নয় । এছাড়াও আরও অনেক ব্যবহার রয়েছে ।

এমনকি ফুসফুস সারিয়ে তুলতে অত্যন্ত উপকারী জিরা পানি । যদি আপনি প্রতিনিয়ত ব্যবহার করেন বা সেবন করেন তাহলে কিন্তু আপনার অনেক রো-গ মুক্তি হয়ে যাবে নিমিষের মধ্যে । কো-ষ্ঠকা-ঠিন্য শ্বা-সক-ষ্ট হা-র্টের স-মস্যা ফুসফুসের স-মস্যা থেকে যাবতীয় যে সমস্ত রো-গ ব্যাধি গুলো রয়েছে সেগুলো কিন্তু মুহূর্তের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে । যদি আপনি প্রতিনিয়ত জিরা পানি ব্যবহার করেন । তার পাশাপাশি অতিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার খাওয়ার ফলে যদি বদহজম এসিডিটি হয় বা পেটের কোন সমস্যা দেখা দেয় তাহলে কিন্তু সেই সমস্ত সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে এই জিরা পানি ।

Back to top button