এবার থেকে অন ডিমান্ড পদ্ধতিতে পাওয়া যাবে দৈনিক টিকিট! জানালো পূর্ব রেল।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ল-কডা-উন এর সময় বন্ধ হয়ে গেছিল লোকাল ট্রেনের চাকা । যার ফলে অ-সুবিধায় পড়ে ছিল সাধারণ নিত্যযাত্রী মানুষেরা । যদিও শহরাঞ্চলে মেট্রো সরকারি এবং বেসরকারি বাস-ট্যাক্সি অটো ইত্যাদি চালু করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে । কিন্তু যারা গ্রামাঞ্চলে থাকে তাদের ক্ষেত্রে কোথাও যেন এই অসুবিধা তীব্র আকার ধারণ করেছে । কারণ গ্রামের অনেকেই থাকে যারা সরাসরি শহরের সাথে যুক্ত লোকাল ট্রেনের মাধ্যমে । কিন্তু লোকাল ট্রেনের দরুন তারা কাজে আসতে পারছেনা যার ফলে একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ দেখা দিয়েছিল । তবে এবার কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস দিল পূর্ব রেল ।

আমরা দেখেছিলাম কিছুদিন আগে হাওড়া এবং শিয়ালদা ডিভিশনের বিভিন্ন স্টেশনে একাধিকবার সাধারণ নিত্যযাত্রী বিভিন্ন রকম ভাবে বি-ক্ষোভ করেছে, রেল অ-বরোধ করেছে । যার ফলে পূর্ব রেলওয়ের কর্মকর্তারা সমস্ত বিষয়টি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কে চিঠি দিয়েছিলেন এবং বারবার অনুরোধ করেছেন যাতে লোকাল ট্রেন চালানো হয় । তারা সমস্ত রকম বিধি মেনে ট্রেন চালাতে প্রস্তুত আছে । কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অন্যান্য পরিবহন ব্যবস্থার উপর ছাড় দিলেও লোকাল ট্রেন চালাতে রাজি নয় ।

যার ফলে পুনরায় বিক্ষোভের আকার ধারণ করছে পরিবেশ । কবে থেকে চলবে লোকাল ট্রেন এখনো পর্যন্ত জানা যায় নি তবে ইতিমধ্যে স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে । অপরদিকে এক বিশেষ তথ্য প্রযুক্তির সাহায্য নিয়েছে শিয়ালদা ডিভিশন রেল কর্তৃপক্ষ । এবার থেকে মাসিক টিকিট না কেটে দৈনিক টিকিট কাটতে পারে জরুরী পরিষেবা সাথে যুক্ত ব্যক্তিরা । টিকিট কাউন্টার বন্ধ অথচ অফিস খোলা রয়েছে । তাই বিনা টিকিটে যাত্রা করতে হচ্ছে তাদেরকে ।

কোন কারণে টিকিট চেকারের হাতেনাতে ধরা পড়ে গেলে মোটা অংকের টাকা ফাইন লাগছে । এবার থেকে সেই ব্যবস্থা রেহাই মিলবে এর মাধ্যমে এমনটা জানাচ্ছে পূর্ব রেলের কর্মকর্তারা ।উপযুক্ত নথি দেখিয়ে সাধারণ নিত্যযাত্রীরা প্রতিদিনের টিকিট কাটতে পারবে বলে জানা যাচ্ছে । তবে এই ব্যবস্থা আপাতত শিয়ালদা ডিভিশন এর জন্য পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছে । আগামী দিনে সমস্ত ডিভিশনে এবং সমস্ত স্টেশনে পৌঁছে বলে অনুমান করা হচ্ছে । গতকাল পূর্ব রেল ঘোষণা করেছে যে এই পরিস্থিতিতে দৈনিক টিকিট কেটে ট্রেনে সফর করতে পারবেন মানুষজন।

তবে এই সফর করার নির্দিষ্ট কারণ উল্লেখ করতে হবে। টিকিট কাটার ক্ষেত্রে দরকার নেই কোনো রকম পরিচয় পত্র।পূর্ব রেল জানিয়েছে সোমবার থেকেই টিকিট বিক্রি শুরু হয়ে গিয়েছে । সোমবার প্রত্যেকটি বুকিং অফিসে শিয়ালদহের অ্যাসিস্ট্যান্ট স্টেশন মাস্টার মেসেজ দিয়ে বলেছেন যে যাত্রীরা যদি টিকিট না পাওয়ার যেকোনো রকম অ-ভিযোগ দা-য়ের করেন তাহলে বুকিং কাউন্টারের কর্তব্যরত কর্মীর উপর এই দায় গিয়ে পড়বে।যার দরুন মঙ্গলবার থেকেই শিয়ালদহে প্রত্যেকটি স্টেশনে অন ডিমান্ড টিকিট বিক্রি শুরু হয়ে গিয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত হাওড়া স্টেশনে এই অন-ডিমান্ড টিকিট বিক্রি চালু করা হয়নি।

Back to top button