ঠিকঠাক ভাবে আবেদন করার পরেও এই একটিমাত্র ভুলে টাকা ঢুকছে লক্ষ লক্ষ গৃহবধূর! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার জন্য ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যের মহিলাদেরকে আর্থিক সহায়তা করার কথা দিয়েছিলেন। 500 টাকা এবং হাজার টাকা করে প্রতিমাসে তাদের ব্যাংকের একাউন্টে পৌছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটে জয়লাভ করার পর তিনি তাঁর কথা রেখেছেন।সেপ্টেম্বর মাস থেকে রাজ্যে মহিলারা তাদের ব্যাংক একাউন্টে সরকারি তরফ থেকে 500 টাকা এবং হাজার টাকা করে অনুদান পাচ্ছেন।

শুধুমাত্র বয়স হতে হবে আপনার 25 থেকে 60 বছরের মধ্যে। কিন্তু যত দিন যাচ্ছে ততোই বাড়ছে লক্ষী ভান্ডার নিয়ে সমস্যা । এমন বহু মানুষ রয়েছে যাদের আবেদনপত্র সঠিক তারপরও একটি ভুলের জন্য আটকে আছে ব্যাংকে টাকা জেনে নিন সেই ভুলটি কি।লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য প্রাথমিক পর্যায় 2 কোটি 45 লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল এবং ইতিমধ্যে প্রায় 850 কোটি টাকা খরচ হয়ে গিয়েছে।

মোট লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ টাকার পরিমাণ হচ্ছে 17 হাজার কোটি টাকা। ষষ্ঠীর দিন 80 লক্ষ মহিলার একাউন্টে টাকা প্রবেশ করে গেছে।এর আগে 20 লক্ষ মহিলার একাউন্টে টাকা প্রবেশ করেছিল। পাশাপাশি নথি গত সমস্যা যাতে 30 শে অক্টোবর এর মধ্যে মিটে যায় তার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যের মুখ্যসচিব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে সেপ্টেম্বর মাস থেকেই তাদের একাউন্টে টাকা ঢুকে যেতে শুরু করবে।

সেই মতো গোটা রাজ্য জুড়ে চালানো হয়েছিল দুয়ারে সরকার ক্যাম্প।সেখানে প্রচুর মানুষ আবেদন করেছেন লক্ষী ভান্ডার এর জন্য ।কিন্তু সমস্ত কিছু ঠিক থাকার পরও এই একটি ভুলের জন্য আটকে আছে লক্ষ লক্ষ গৃহবধূর টাকা । সূত্র অনুসারে মনটা জানা যাচ্ছে যে 35 লক্ষ মহিলার আবেদনপত্র অসম্পূর্ণ রয়েছে ।কারণ তাদের আবেদনপত্র অসম্পূর্ণ ছিল। কারণ কারুর ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট নেই কেউ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট নম্বর ভুল দিয়েছে কারুর ব্যাংক কেওয়াইসি করা নেই।

সব মিলিয়ে 35 লক্ষ মহিলার আবেদনপত্র আপাতত স্থগিত রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। সেই সমস্ত সমস্যাগুলিকে দ্রুত মিটিয়ে নেওয়া নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যের মুখ্যসচিব ।তাই গ্রাহকদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করার পরিকল্পনা করেছে নবান্ন। সূত্র অনুসারে এমন টা জানা যাচ্ছে যে উত্তর 24 পরগনা এবং দক্ষিণ 24 পরগনা থেকে সবথেকে বেশি আবেদনপত্র জমা পড়েছে।

Back to top button