দারুণ কায়দায় বাড়িতে এই পদ্ধতিতে মুসুর ডাল রান্না করলে তার স্বাদই হয় দুর্দান্ত, খেতে হয় দারুণ টেস্টি, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিদিনই নতুন কিছু রান্না করতে আমাদের প্রত্যেকের ভালো লেগে থাকে । কিন্তু নিত্যনতুন এই রান্নার মাঝেও আমরা কখনো কখনো পুরনো কিছু রান্না থাকে যেগু-লি ভুলে যায় । এবং ধীরে ধীরে তার স্বাদ আমরা ভুলতে শুরু করি । এই যেমন ধরুন না আগেকার দিনে ভিসন সুন্দরভাবে বাড়িতে ডাল রান্না করা হতো । এবং সে ডাল এর স্বাদ অন্যান্য খাবার তুলনা যথেষ্ট পরিমাণে আলাদা ছিল ।যার ফলে দুপুরে খাবার একেবারে জমে যেত । শুধুমাত্র ডাল দিয়ে এক থালা ভাত পরিষ্কার করে নেওয়া যেত ।

কিন্তু বর্তমান যুগে তা-ড়াহু-ড়ো কারণবশত বা অন্য কোনো কারণে তেমন ভাবে ডাল রান্না করা হয় না । তাই আজকালের প্রতিবেদন আপনাদের জানাব কিভাবে অল্প সময়ে খুব তাড়াতাড়ি তৈরি করতে পারবে ন। এই সুস্বাদু ডাল তৈরি করার জন্য আপনাকে হন্য হয়ে বাজার ঘুরতে হবে না । আপনার বাড়িতে থাকে জিনিসপত্র দিয়ে কিন্তু আপনি তৈরি করে নিতে পারবেন এ সুস্বাদু ডাল । আসুন দেখি কি কি উপকরণ লাগবে । ডাল তৈরি করার জন্য পেঁয়াজ সামান্য হলুদ এবং রসুন এর প্রয়োজন হবে আসুন জেনে নেই ঠিকই পদ্ধতিতে ডাল রান্না করলে সেটি অত্যন্ত সুস্বাদু হবে ।

প্রথমে ডালটি কে ভাল করে ভিজিয়ে নিতে হবে । তারপর একটু বেশিমাত্রায় জল দিয়ে গ্যাসের আচে বসিয়ে দিতে হবে । তারপর সেটিকে বেশ কিছুক্ষণ ধরে ভালো করে ফোটাতে হবে । অর্থাৎ যতটা পরিমান জল দিয়েছিলেন তার তিনভাগের এক ভাগ জল যেন কমে আসে এমন ভাবে ফোটাতে হবে । তারপর দেখবেন যে সেই ডাল সেদ্ধ হয়ে গেছে । ডাল যদি আগে থেকে সেদ্ধ করে নেওয়া হয় তাহলে তার স্বাদ অত্যন্ত ভালো হয়।

এরপর কিছুটা পেঁয়াজ কু-চি এবং কিছুটা রসুন কু-চি করে তার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে এবং যোগ করতে হবে সামান্য পরিমাণ হলুদ । তাহলে এর রং কিছুটা পাল্টাবে এবং পরিমাণ মত নুন দিতে হবে । তারপর পুনরায় ঢাকা দিয়ে সেটিকে সেদ্ধ করতে দিতে হবে পাঁচ থেকে সাত মিনিটের জন্য । ৫-৭ মিনিট পর ঢাকনা খুলে দেখবেন সেখান থেকে একটা ভালো সুগন্ধ বেরিয়েছে। অর্থাৎ আপনি সেখান থেকে বুঝতে পারবেন যে আপনার ডাল তৈরি করা সম্পন্ন হয়েছে ।

Back to top button