“কলকাতার স্পেশাল মটন বিরিয়ানি” বাড়িতে যেভাবে রান্না করলে তার সাধারন একদম দোকানের মতো, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বিরিয়ানি কে না পছন্দ করেন!ঘরোয়া কোনো অনুষ্ঠান হোক বা বিশেষ কোনো অতিথি আপ্যায়ন সব কিছুতেই বিরিয়ানি সেরা।বিরিয়ানি বিভিন্ন ভাবে পরিবেশন করা হয়।প্রকারভেদ অনুযায়ী রায়তা,চাটনি,সালাদ, সিদ্ধ ডিম, কাবাব প্রভৃতি দিয়ে পরিবেশন করা হয়।আজ আমরা আপনাদের সাথে এমনই একটি অসাধারণ বিরিয়ানির রেসিপি আলোচনা করতে চলেছি। যা সহজেই আপনি বানিয়ে নিতে পারেন বাড়িতে ।

আপনি যদি মটন বিরিয়ানি তৈরি করতে চান তাহলে প্রথমে মটনের অংশগুলোকে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে এবং তা সে গুলোকে ম্যারিনেট করতে হবে । এর জন্য মটন গু-লির মধ্যে দিতে হবে আদা বাটা রসুন বাটা গোলমরিচ গুঁড়ো সামান্য পরিমাণ গরম মসলা বিরানী মসলা এবং আগে থেকে করে রাখা জাফরান ও এলাচ গুঁড়ো দিয়ে দিতে হবে তার মধ্যে । তারপর একটি ক্যারি ব্যাগ এর সাহায্যে ২ থেকে ৩ ঘন্টা ঢাকা দিয়ে রেখে দিতে হবে ।

এরপর একটি পাত্রে তেল দিতে হবে এবং আগে থেকে ছোট ছোট অংশ কে-টে রাখা পেঁয়াজ গু-লিকে করা করে ভেজে নিতে হবে । সেই তেলে ভেজে নিতে হবে আগে থেকে মাঝারি সাইজের কে-টে রা-খা আলু গু-লিকে । অপরদিকে একটি পাত্র থেকে তেল দিতে হবে কিছুটা পরিমাণ এবং সেই তেলের মধ্যে আপনি চাইলে যোগ করতে পারেন ঘি । তারপর আগে থেকে ম্যারিনেট করে রাখা মাংস টুকরোগু-লি সেখান দিয়ে দিতে হবে এবং ভাল করে কষিয়ে নিতে হবে ।

বেশ কিছুক্ষণ কষিয়ে নেওয়ার পর সেই মানুষগুলোকে আলাদা একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে এবং মাংসের গ্রেভি অন্য একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে । সেই মাংসের গ্রেভির মধ্যে আপনাকে যোগ করে দিতে হবে আগে থেকে ভেজে রাখা আলু গু-লিকে । অপরদিকে আগে থেকে ভিজিয়ে রাখা বাসমতি চাল ৭০% সেদ্ধ করে নিতে হবে । বেশি সেদ্ধ করলে চলবে না তারপর একটি পাত্র ঘি বুলিয়ে নিতে হবে এবং প্রথমে অর্ধেক সেদ্ধ হওয়া বাসমতি চালের একটি আস্তরণ দিতে হবে ।

তারপর দিয়ে দিতে হবে তার উপরে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা আলু ও মাংসের টুকরো । তারপর পুনরায় আরো একটি চালের আস্তরন দিতে হবে এবং তার উপর আবার দিতে হবে মাংসের একটি আস্তরন । এভাবে দুই থেকে তিনবার আস্তরন দেওয়ার পর উপর থেকে পেঁয়াজ ভাজা বা যাবতীয় যে সমস্ত মসলা রয়েছে সেগুলো ছড়িয়ে দিলে তৈরি হয়েছে বিরিয়ানি ।

Back to top button