দারুণ কায়দায় বাড়িতে এই পদ্ধতিতে পটলের এই রেসিপি রান্না করলে তার স্বাদই হয় দুর্দান্ত, খেতে হয় দারুণ টেস্টি, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিদিনের একঘেয়েমি খাবার থেকে মুক্তি পেতে চান ? মন চাইছে মুখরোচক কিছু খাবার খেতে? কিন্তু এই মুহূর্তে বাইরে থেকে খাবার আনা বি-প-দ-জ-নক হতে পারে সেটা ভেবে জানাতে পারছেন না? তাহলে আজকের এই প্রতিবেদন আপনাদের জন্য । আজকের এই প্রতিবেদন আপনি জানতে চলেছেন যে বাড়ির মধ্যে কিভাবে মুখরোচক খাবার বানানো যায় তাও আবার শুধুমাত্র পটল আর আলু দিয়ে। । শুধুমাত্র ইউটিউব থেকে বা অন্য কোন পাঠ্যপুস্তক পড়ে যে ভালো রাঁধুনী হওয়া যায় তেমন কিন্তু নয় । রান্না করার জন্য চাই একটি সুন্দর মন ।

যার মন যত পরিষ্কার এবং স্বচ্ছ সে ততো সুস্বাদু রান্না বানাতে পারে । এমনটা মনে করেন অনেকে । কিন্তু বর্তমানের এই সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে বিভিন্ন ধরনের উপকরণ অনলাইনে উপলব্ধি হওয়ার জন্য এখন প্রায় প্রতিটি বাড়ির মেয়েরা ভাল ভাল রান্না করতে শিখে গেছে। হঠাৎ করে বাড়িতে যদি কেউ চলে আসে এবং জল খাবারের জন্য কি করবেন সেটা ভেবে উঠতে পারছেন না? তাহলে অতি অবশ্যই নির্দ্বিধায় অল্প সময়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন এই রেসিপিটি । এই রেসিপি তে বেশি ঝা-মেলা নেই এবং বেশি সময় লাগে না তাই অনায়াসে বানাতে পারেন এটি ।

এই রেসিপিটি বানানোর জন্য প্রয়োজন হবে কিছু পটলের । প্রথমে পটল গুলোকে ভাল করে ধুয়ে তার ছাল ছাড়িয়ে নিতে হবে । এরপর পটল গু-লিকে মাঝ বরাবর কে-টে নি-তে হবে । পটলের মধ্যবর্তী অংশে যে বীজ থাকে সেগুলো খেতে চামচের সাহায্যে উপড়ে ফেলতে হবে । যার ফলে এটি একটি গর্তের মতন আকৃতি ধারণ করবে। এরপর তার মধ্যে পুর হিসেবে দিতে হবে আগে থেকে তৈরী করে রাখা আলু সেদ্ধ । তবে শুধুমাত্র আলু সেদ্ধ নয় । কড়াই এর মধ্যে তেল দিতে হবে এবং তার মধ্যে দিতে হবে সামান্য পরিমাণ পাচফোরন ও পেঁয়াজ কুচি এবং আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা আলু ।

তারপর সামান্য পরিমাণ নুন লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে বেশ ভালো করে মাখাতে হবে বা ক-ষিয়ে নিতে হবে । এরপর যে মিশ্রণ তৈরি হবে সেটি পটলের ফাঁকা অংশ পূরণ করতে হবে অর্থাৎ পুর দিতে হবে । এরপর অন্য একটি পাত্রে এক চামচ বেসন নিতে হবে এবং তার মধ্যে জল দিয়ে বেসনের একটি পাতলা পেস্ট বা মিশ্রণ তৈরি করতে হবে । এবং আগে থেকে আপনি যে পুর দেওয়া পটল তৈরি করে রেখেছিলেন সেগু-লিকে সেই বেসন এর মিশ্রণের মধ্যে ডুবিয়ে গরম তেলে ভেজে নিতে হবে এক এক করে ।তাহলে তৈরি হয়ে যাবে দুর্দান্ত পদ্ধতিতে পটল এই রেসিপিটি ।

Back to top button