নিজের প্রথম ইনকামের টাকা দিয়ে কেনা বাইকে ছেলেকে বাইক চালানো শেখাচ্ছেন বাবা রাজ, রইলো ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বিনোদন জগতে এই মুহূর্তে সবথেকে যে খবরটি প্রতিনিয়ত খবরের শিরোনাম দ-খল করে রাখছে সেটি হল শুভশ্রীর ছেলে ইউভান এর ঘটনা । আমরা জানি যে বাংলার অভিনয় জগতে একজন জনপ্রিয় নক্ষত্র হলেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী । যথেষ্ট পরিশ্রম এবং সংগ্রাম করে বর্ধমান শহর থেকে উঠে এসে কলকাতাতে পাড়ি দিয়েছিলেন তিনি শুধুমাত্র নিজের স্বপ্ন পূরণের তাগিদে । তার পাশাপাশি যেহেতু তার পরিবার বনেদি পরিবারের তাই বাড়ির মেয়েদের বাইরে যাওয়া উপর নিষেধাজ্ঞা ছিল প্রচুর পরিমাণে ।

তবুও সেই সমস্ত কিছুকে উপেক্ষা করে তিনি নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে পেরেছেন তাই তো বাংলার মানুষ পেয়েছে একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী কে । গত তিন বছর আগে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সাথে বিবাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয় শুভশ্রী গাঙ্গুলী । যদিও শুভশ্রী গাঙ্গুলী সাথে দেবের একটা প্রেমের সম্পর্ক ছিল এমনটা গুঞ্জন উঠেছিল টলি পাড়াতে কিন্তু সেই সমস্ত গুঞ্জন কে উপেক্ষা করে এখন বর্তমানে তিনি রাজ চক্রবর্তীর স্ত্রী ।এবং গত বছর তার কোল আলো করে এসেছে একটি ছোট্ট ফুটফুটে সন্তান যার নাম ইউভন ।  এবং এর দু-ষ্টুমি খু-নসুটি মনে ধরেছে নেট মাধ্যমে সকল নাগরিকদের তাইতো প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে তার জনপ্রিয়তা ।

সেলিব্রিটিদের সম্পর্কে উৎসাহ সাধারণ মানুষের অনেকখানি বেশি। একথা নতুন করে বলার আর অপেক্ষা রাখে না । কিন্তু কোথাও যেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী এবং রাজ চক্রবর্তীর সম্পর্কে জানার আগ্রহ প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে অনুরাগী দের । তার একমাত্র কারণ হচ্ছে তাদের ছোট্ট পুত্র সন্তান । সে কখন কি করছে না করছে সবকিছু জানার চেষ্টা করে থাকে তার অনুরাগীরা । ইতিমধ্যে তার নামে একটি ফ্যান পেজ খুলে ফেলেছে তারা যা বাংলা অভিনয় জগতে প্রথম ।  রাজ চক্রবর্তীর প্রথম উপার্জন শুরু হয় ২০০৩ সালে এবং সেই ২০০৩ সালে তিনি একটি নীল রঙের পালসার বাইক কেনেন ।

যদিও সে বাইকটি এখন খুব যত্নসহকারে বাড়ির মধ্যে তুলে রাখা হয়েছে। কারণ প্রথম উপার্জনের টাকায় কেনা বাইক কখনোই রাজ চক্রবর্তী বিক্রি করতে চাইনি । এখন তার ছোট্ট পুত্রসন্তান সে বাইকে চেপে পোজ দিয়ে ফটো তুলছে যা সত্যিই একটি আনন্দের মুহূর্ত রাজ চক্রবর্তীর কাছে । এবং ছবিটি দেখলে আপনি বুঝতে পারবেন যে ছোট্ট ছেলে চাইছে বাইক চালিয়ে বাইরে কোথাও ঘুরে আসতে সেই ছবি শেয়ার করে রাজ চক্রবর্তী লিখেছেন আমি খুব আনন্দিত । তুমি যেদিন এই গাড়িটি চালাবে সেদিনের অপেক্ষায় রইলাম আমি । আদর মাখা এবং আবেগপ্রবণ এই ছবিটি ভাইরাল হয়েছে নেট মাধ্যমে ।

Back to top button